সন্দীপ মহেশ্বরী

ফটোগ্রাফার থেকে কোটিপতি

  জামিউর রহমান জিসান

০৪ অক্টোবর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

যখন বয়স ১৩ বছর, তখন তার বাবা তাকে একটি মোটরসাইকেল কিনে দেন। এই মোটরসাইকেল নিয়ে ছুটে বেড়াতে থাকেন দিল্লির এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে। পরিচিত হন অনেক কিছুর সঙ্গে। এক সময় তিনি মোটরসাইকেল ভাড়া দিতে শুরু করেন। কিছু দিনের মধ্যে এলাকায় তিনি মোটরসাইকেল ভাড়া ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিতি পান। এতে তার প্রতিঘণ্টায় আয় হয় ৫০ রুপি। কিন্তু কয়েক বছর পর তার বাবার ব্যবসায় যখন মন্দা নেমে আসে তখন তিনি বুঝতে পারেন পরিবারের হাল তাকে ধরতে হবে। তখন তার বয়স সবে ১৯। এর পর থেকে শুরু হয় তার জীবিকার জন্য সংগ্রাম।

১৯৯৯ সালে তারা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টসংশ্লিষ্ট ব্যবসা শুরু করেন। ভালোই চলছিল সব কিছু। তারা যা আয় করতেন তা দুজন ভাগাভাগি করে নিতেন। কিন্তু কিছু দিন যাওয়ার পর প্রতারণার শিকার হয়ে অসহায় হয়ে পড়েন তিনি।

এর পর শুরু করেন ফটোগ্রাফির চিন্তা। ফটোগ্রাফির দুই সপ্তাহের কোর্সও করেন তিনি। ১২ হাজার রুপি দিয়ে একটি ক্যামেরা কিনে যোগাযোগ শুরু করেন মডেলিং এজেন্সিগুলোর সঙ্গে। এর পর থেকেই তিনি সাফল্যের মুখ দেখতে শুরু করেন। এরই ফল হিসেবে মালিক হন ইমেজবাজার প্রতিষ্ঠানটির। সন্দীপ আরও জানান, বিশ্বে ভারতের সবচেয়ে বেশি ছবি সংগ্রহকারী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে ইমেজবাজার। আর ৪৫ দেশে এই প্রতিষ্ঠানটির সাড়ে ৭ হাজার ক্লায়েন্ট রয়েছেন। ২০১০ সালে প্রতিষ্ঠানটির আয় হয়েছিল ১০.২ কোটি রুপি।

জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান মূল্য প্রায় ১০০ কোটি থেকে ১২০ কোটি রুপি।

শুধু একটি প্রতিষ্ঠানের সফল মালিক হিসেবে নয়, তার সাফল্যের খাতায় রয়েছে অনেক পুরস্কার। তিনি ২০১৩ সালে ক্রিয়েটিভ এন্টারপ্রেনিওর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। ব্রিটিশ কাউন্সিল থেকে ইংয়ং ক্রিয়েটিভ এন্টারপ্রেনিওরসহ অনেক পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে