প্রাচীন হায়ারোগ্লিফ সংখ্যা আদিম মানুষরাও গণনা

  হোসনে আরা জাহান

০৫ অক্টোবর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

করত। প্রাচীনকালেও মানুষের প্রতিদিনের কাজে হিসাব করার প্রয়োজন হতো। নিজের দলের সদস্যদের হিসাব রাখা, গবাদি পশুর হিসাব রাখা, দিনক্ষণের হিসাব করা এবং সারাদিনের নানা কাজের হিসাব রাখতে তারা গণনা করত।

জানতে ইচ্ছা করে, তারা কি আমাদের মতোই গণনা করত? গবেষকরা বলেছেনÑ মোটেও না। প্রাচীনকালে মানুষের হিসাব নিকাশ মোটেও আমাদের মতো ছিল না। ছিল একটু ভিন্ন ধরনের।

গবেষকরা অনুমান করেন, সর্বপ্রথম আদিম মানুষ গণনা করেছিল আঙুলে গুনে। সেই সময় মানুষ ইশারায় কথা বলত। দড়িতে গিঁট দিয়ে ও পোড়ামাটির টুকরো গুনে হিসাব রাখা হতো। পরবর্তীকালে কাঠে, হাড়ে বা পাথরে খোদাই করে বিভিন্ন সংকেত লিখে গণনা করা হতো। বিভিন্ন জনগোষ্ঠী বিভিন্ন রকম গণনা পদ্ধতিতে বিভিন্ন রকম চিহ্ন বা সংকেত ব্যবহার করত। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের সেসব গণনার কৌশল ধীরে ধীরে উন্নত হয়ে ওঠে।

প্রাচীন মিসরীয়রা প্রায় ৬ হাজার বছর আগে গণনার জন্য একটি সংখ্যা পদ্ধতির প্রবর্তন করেছিল। তারা তখন প্রাচীন হায়ারোগ্লিফ সংখ্যা পদ্ধতিতে গণনার প্রচলন করে।

হায়ারোগ্লিফ শব্দটির অর্থ হলোÑ খোদাই করা পবিত্র চিহ্ন। এ পদ্ধতিতে বিভিন্ন ধরনের চিহ্ন খোদাই করে লেখা হতো। তখন বিভিন্ন ধরনের চিহ্ন এঁেক বিভিন্ন সংখ্যা প্রকাশ করা হতো।

চিত্রে দেখানো কিছু সংকেত ব্যবহার করে মিসরীয়রা এ পদ্ধতিতে হিসাব করতÑ

প্রাচীন এই হায়ারোগ্লিফ সংখ্যা ব্যবস্থায়Ñ

দিয়ে ১,

দিয়ে ২,

দিয়ে ১০,

দিয়ে ১০০,

(পদ্মফুল) দিয়ে ১০০০,

(বাঁকা আঙুল) দিয়ে ১০০০০,

(ব্যাঙ বা পাখি) দিয়ে বোঝাত ১০০০০০।

এ পদ্ধতিতে সংখ্যাগুলো দশ গুণের নিয়মে আছে। অর্থাৎ ১০, ১০০, ১০০০, ১০০০০... এভাবে। এ চিত্রে আরও কিছু হায়ারোগ্লিফ সংখ্যার চিহ্ন দেখানো হলোÑ

 

এসব চিহ্ন ব্যবহার করে মিশরীয়রা প্রয়োজনমতো বিভিন্ন সংখ্যা প্রকাশ করত। যেমনÑ

মানে হলো ১১

মানে হলো ২১

মানে হলো ৪০

মানে হলো ২১২

মানে হলো ৫০০

মানে হলো ১১১২

প্রাচীন মিসরীয়রা সেকালে এমনই নানা ধরনের হায়ারোগ্লিফ সংখ্যা ব্যবহার করে প্রয়োজনীয় হিসাব-নিকাশ রাখত। যেমনÑ গরুর হিসাব রাখতে প্রথমে গরুর ছবি এঁকে তার পাশেই সংখ্যাবাচক ছবি আঁকা হতো। যদি একটি গরুর চিত্রের পাশে

 

আঁকা থাকত, তবে বোঝানো হতো, সেখানে ৫০০টি গরু আছে। প্রাচীন মিসরীয়রা মন্দির ও পিরামিডের গায়েও খোদাই করে হায়ারোগ্লিফ লিপিতে অনেক কিছুই লিখে রেখেছিল। গবেষকরা সেসব স্থান দর্শন করেছেন। তারা সেসব স্থানে হায়ারোগ্লিফ সংখ্যার এমন ব্যবহার দেখেছেনও।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে