ব্যথা যদি হয় শরীরে, তবে...

  ডা. এম ইয়াছিন আলী

০৩ অক্টোবর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আমরা বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যায় ভুগে থাকি। শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রতঙ্গের ব্যথা এর মধ্যে অন্যতম। একটু সতর্ক থাকলেই এ ধরনের ব্যথা নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

কাঁধব্যথা : আঘাত লাগা, পেশিতে টান, হাড় ভেঙে যাওয়া, লিগামেন্টে ইনজুরিসহ বেশ কিছু কারণে কাঁধে ব্যথা হতে পারে। এতে কাঁধ শক্ত হয়ে যেতে পারে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত রোগীরা এ ধরনের সমস্যায় বেশি ভোগেন। হৃদরোগ বা স্ট্রোকের কারণেও কাঁধে ব্যথা হতে পারে। এ রোগ নিরাময়ে বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা আছে। ব্যথা উপশমকারী ও মাংসপেশি শিথিলকারী ওষুধ ব্যবহারের পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের হিট দেওয়া হয়ে থাকে। যেমনÑ ডিপ হিট ও সুপার ফেসিয়াল হিট। বিশেষ ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়ে থাকে ইলেক্ট্রথেরাপি। কাঁধে ব্যথা কমাতে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ইনজেকশন প্রয়োগ করা যেতে পারে। তবে যারা সাধারণ কাঁধব্যথায় ভুগছেন, তাদের জন্য কিছু ব্যায়াম বেশি উপকারী। এ জন্য মেরুদ- সোজা রেখে কাজ করবেন। ভারী কাজ এড়িয়ে চলুন। শোয়ার সময় ঘাড়ে নরম বালিশ ব্যবহার করুন। ডায়াবেটিস থাকলে নিয়ন্ত্রণে রাখুন।

ঘাড়ব্যথা : ৫০ বছরের পর যে কোনো ব্যক্তি এ রোগে ভুগতে পারেন। আঘাত লাগা, ঘাড়ের ইনফেকশন, অস্টিওপোরোসিস, হাড়ে টিউমার, ভিটামিন-ডি, ক্যালসিয়ামের অভাব ইত্যাদি কারণে ঘাড়ব্যথা হয়। আরেকটি কারণ হলো, সার্ভাইক্যাল স্পন্ডাইলোসিস। বয়স বাড়লে এ রোগে আক্রান্তের ঝুঁকি বাড়ে। ঘাড়ের মাংসপেশির অবশ ভাব হয় এবং ব্যথা ক্রমে ছড়িয়ে পড়ে। ঘাড়ব্যথা হলে ঘাবড়ানোর কিছু নেই। অনেক সময় সামান্য কারণেও ঘাড়ব্যথা হতে পারে। যেমনÑ উঁচু বালিশে ঘুমানো, একনাগাড়ে অনেকক্ষণ একদিকে তাকিয়ে থাকা, ফোমের বিছানায় ঘুমানো ইত্যাদি। তাই প্রথমে বোঝার চেষ্টা করতে হবে ব্যথা আসলে কেন অনুভূত হচ্ছে। ব্যথা করলে ঘাড়ের নাড়াচাড়া কম করতে হবে। নরম বালিশ ব্যবহার করুন। ঘুম থেকে সাবধানে উঠুন। ঝুঁকে কাজ করবেন না।

হাঁটুব্যথা : গিঁটেবাত হাঁটুব্যথার অন্যতম কারণ। এ ছাড়া অস্থিসংযোগের ক্ষয়ের কারণে ব্যথা হয়। আরও কিছু কারণ, যেমনÑ আঘাত, জীবাণুর সংক্রমণ, শরীরের ওজন বৃদ্ধি ইত্যাদি কারণেও ব্যথা হতে পারে। তাই লম্বা অনুপাতে শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ করুন। সিঁড়ি দিয়ে ওঠা-নামার সময় মেরুদ- সোজা রেখে চলুন। একই স্থানে বেশি সময় দাঁড়িয়ে বা বসে থাকবেন না। ভারী জিনিস বহন করবেন না। ডায়াবেটিস রোগীরা হাঁটার পরিবর্তে সাঁতার কাটুন বা সাইকেল চালান।

লেখক : চেয়ারম্যান ও চিফ কনসালট্যান্ট

ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতাল

ধানম-ি, ঢাকা। ০১৭১৭০৮৪২০২

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে