সৌদিতে বাতিল হচ্ছে আকামা

পোস্ট অফিসেই এমআরপি নবায়ন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৬ অক্টোবর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ০৬ অক্টোবর ২০১৭, ০৯:৪৩ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রবাসীদের জন্য প্রচলিত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি ‘আকামা’ (কাজের অনুমতিপত্র) বাতিল করছে সৌদি আরব। এর পরিবর্তে দেওয়া হবে নতুন পরিচয়পত্র। আকামা জালিয়াতি হওয়ায় তথ্য নিবন্ধন সহজ করার জন্যই এ ধরনের ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে। দেশটির পাসপোর্ট বিভাগের প্রধান সহকারী পরিচালক কর্নেল খালেদ আল সাইখানের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে আরব নিউজ।

খালেদ আল সাইখান বলেন, আগামী বছরের ১৬ আগস্ট থেকে ডাকযোগে প্রবাসীরা নতুন এই পরিচয়পত্র পাবেন। এতে তাদের সব ধরনের তথ্য থাকবে এবং অনলাইনের মাধ্যমেও তা নবায়ন করা যাবে। আর এ ব্যবস্থার মাধ্যমে নতুন প্রযুক্তিতে তথ্য জালিয়াতি বন্ধ, সহজ নিবন্ধন এবং নবায়ন প্রক্রিয়া আরও দ্রুতগতিতে করা সম্ভব হবে।

অন্যদিকে প্রবাসীদের নতুন পরিচয়পত্রে অন্তর্ভুক্ত থাকবে তার বৃত্তি, কাজের যোগ্যতা, জাতীয়তা, ওয়ার্ক পারমিট সংখ্যা, ধর্ম, নিয়োগকর্তার নাম, সংখ্যা ও তারিখ। তথ্যসংবলিত নতুন পদ্ধতিকে ‘আকামা’র পরিবর্তে ‘পরিচয়পত্র’ হিসেবেই গণ্য করা হবে।

এদিকে দেশটিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) নবায়ন করতে আর দূতাবাসে যেতে হবে না। সৌদি আরবের পোস্ট অফিসেই পাসপোর্ট নবায়ন করা যাচ্ছে। সম্প্রতি রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। গেল ১ অক্টোবর থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, পাসপোর্ট সেবা আরও সহজ করতে প্রবাসীদের জন্য আমাদের এ উদ্যোগ। রিয়াদে অবস্থিত সৌদি পোস্ট অফিসে পুরনো পাসপোর্টের ফটোকপি এবং আকামা কপি জমা দিয়ে নতুন এমআরপি সংগ্রহ করা যাবে। এতে সময় ও কর্মঘণ্টা যেমন সাশ্রয় হবে, তেমনই বাঁচবে ভ্রমণ ব্যয়। আপাতত রিয়াদে অবস্থিত সৌদি পোস্ট অফিসের ১৭ শাখায় এ কার্যক্রম চলবে। নভেম্বর থেকে এ সেবা মিলবে অন্যান্য শহরেও।

এমআরপি নবায়নের জন্য মেয়াদোত্তীর্ণ মূল পাসপোর্ট ও তার একটি ফটোকপি এবং মূল আকামা ও ফটোকপি জমা দিতে হবে। তবে মূল পাসপোর্ট ও আকামা শুধু প্রদর্শন করতে হবে, জমা নেওয়া হবে না। এর পর সৌদি পোস্ট অফিস গ্রাহকের কাছ থেকে পূরণ করা রি-ইস্যু ফরম ও আনুষঙ্গিক কাগজপত্র সংগ্রহ করে দূতাবাসে জমা দেবে। নতুন পাসপোর্ট তৈরির পর দূতাবাস সেটি হস্তান্তর করলে সৌদি পোস্ট অফিস একই বুথের মাধ্যমে তা গ্রাহককে ফেরত দেবে।

অবশ্য সৌদি পোস্ট অফিস সংগৃহীত রি-ইস্যুর আবেদনপত্রটি দূতাবাসে হস্তান্তরের সঙ্গে সঙ্গে একটি এসএমএস করবে এবং পাসপোর্ট বিতরণের জন্য প্রস্তুত হওয়া মাত্রই সংগ্রহের অনুরোধ জানিয়ে আরেকটি এসএমএস করবে। জমাদান থেকে শুরু করে পাসপোর্ট পাওয়া পর্যন্ত সময় লাগবে ২০ থেকে ২৫ দিন। এ ছাড়া যে কোনো সময় সৌদি পোস্ট অফিসের ওয়েবসাইটে ভিজিট করে আবেদনটি কোন অবস্থায় রয়েছে, তা জানা যাবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে