বয়ান বন্দেগিতে মুখর তুরাগতীর

আজ আখেরি মোনাজাত

  আবুল হাসান, গাজীপুর প্রতিনিধি

১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইবাদত-বন্দিগি, তাসকিলে তামিল, ধর্মীয় আলোচনা, তসবিহ-তাহলিল আর তবলিগের বিভিন্ন বিষয়ের ওপর বয়ান শোনার মধ্য দিয়ে টঙ্গীর তুরাগতীরে চলছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের দ্বিতীয় দিন। মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করে আজ আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে বিশ্ব ইজতেমার এ পর্ব। বেলা ১১টার মধ্যে বাংলাদেশি মাওলানা হাফেজ মো. জোবায়ের প্রথমবারের মতো বাংলায় মোনাজাত পরিচালনা করবেন বলে ইজতেমার আয়োজকরা জানিয়েছেন। মোনাজাতে বিপুলসংখ্যক মুসল্লির অংশগ্রহণকে সামনে রেখে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে, নেওয়া হয়েছে যানবাহন চলাচলে কড়াকড়ি। দিল্লির মাওলানা সাদের ইজতেমায় অংশ নিতে বাধা দেওয়া ও নীরবে চলে যাওয়াটা তার অনুসারীদের মনে গভীর দাগ কেটেছে বলে জানিয়েছেন তার ভক্ত-অনুরক্তরা।

ইজতেমার মুরব্বি প্রকৌশলী গিয়াস উদ্দিন জানান, প্রচ- কুয়াশা আর শৈত্যপ্রবাহ উপেক্ষা করে ইজতেমায় আসা মুসল্লিরা ধর্মীয় বয়ান শুনছেন। বাদ ফজর বয়ান পেশ করেন বাংলাদেশি মাওলানা মো. নূরুর রহমান। এ ছাড়া বাংলাদেশের মাওলানা ড. মো. জাহাদ ও মাওলানা ফারুক হোসেন বয়ান করেন। দুদিন ধরে ইজতেমা মাঠে সার্বক্ষণিক ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন রয়েছেন লাখ লাখ দেশি-বিদেশি মুসল্লি। ফজর থেকে এশা পর্যন্ত ইজতেমা মাঠে ঈমান, আমল, আখলাক ও দ্বীনের পথে মেহনতের ওপর বয়ান হয়। দেশ-বিদেশ থেকে আসা মুরব্বিরা তবলিগের ছয় ওসুলের মধ্যে দাওয়াতে দ্বীনের মেহনতের ওপর গুরুত্বারোপ করে বয়ান করেন।

আজ আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি মাওলানা কাকরাইল মসজিদের ইমাম হাফেজ জোবায়ের। ইজতেমা শেষে মুসল্লিরা দ্বীনের দাওয়াতি কাজে দেশ-বিদেশে বেরিয়ে যাবেন।

আগামী বছর ইজতেমা ১১ জানুয়ারি : আগামী বছরের ১১ জানুয়ারি বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব শুরুর তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে কাকরাইল মসজিদে তবলিগ মুরব্বিদের এক পরামর্শসভায় ওই তারিখ নির্ধারণ করা হয় বলে ইজতেমার আয়োজক সূত্রে জানা গেছে। সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে ১১, ১২ ও ১৩ এবং দ্বিতীয় পর্ব হবে ১৮, ১৯ ও ২০ জানুয়ারি।

এক মুসল্লির মৃত্যু : বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিতে এসে নূরহান বিন আব্দুর রহমান (৫৫) নামে এক মালয়েশিয়ার নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে।

ইজতেমার মুরব্বি গিয়াস উদ্দিন জানান, মালয়েশিয়ার নাগরিক নূরহান বিন আব্দুর রহমান বিশ্ব ইজতেমায় যোগ দিয়ে তুরাগ মাঠেই অবস্থান করছিলেন। শুক্রবার রাতে নামাজের জন্য অজু করেন। সেখানে হঠাৎ করে তিনি মাটিতে পড়ে যান। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। নূরহান বিন আব্দুর রহমানের লাশ মালয়েশিয়ান দূতাবাসের মাধ্যমে সে দেশে হস্তান্তর করা হবে। এর আগে সড়ক দুর্ঘটনা ও শ^াসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে দুই মুসল্লি মারা যান।

যানবাহন নিয়ন্ত্রণ : ইজতেমায় নিরাপত্তা বাড়ানোর পাশাপাশি গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ জানিয়েছেন, রবিবার ১১টায় আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে রাত ১২টা থেকে গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস থেকে আবদুল্লাহপুর এবং নিমতলী থেকে টঙ্গী ও আশুলিয়াসহ আশপাশের সড়কগুলোয় যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে মুসল্লিদের যাতায়াতে ১৫টি শাটল বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আর সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অজু-গোসলের পানি সরবরাহ ও নতুন টয়লেট নির্মাণসহ সার্বিক সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো হয়েছে। ইজতেমায় মুসল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে বিশেষ ট্রেন সার্ভিস ও সড়কপথে যাতায়াতে বাড়তি বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে