নাগালের বাইরে টমেটোর দাম

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২১ অক্টোবর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০১৭, ০২:১৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

টমেটো একসময় ছিল শীতকালীন সবজি। কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন পদ্ধতির প্রয়োগে সারা বছরই এর পর্যাপ্ত চাষ হয়। অথচ বর্তমানে এক কেজি টমোটোর দাম ১২০ টাকা থেকে ১৪০ টাকা, যা মধ্যবিত্তদের ক্রয়সীমার বাইরে।

বাংলাদেশ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, গত বছর ৫১ হাজার ২৬৬ হেক্টর জমিতে ১৩ লাখ ৬০ হাজার ২০৫ টন টমোটোর ফলন হয়েছে। যা সারা বছরের চাহিদার তুলনায় পর্যাপ্ত।

এক মাস আগেও টমেটোর কেজি ছিল ১০০ টাকা। আর গত বছরের এই সময়ে ছিল ৮৫ টাকা। বর্তমানে দাম ৪১ শতাংশ থেকে ৬৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ১২০ থেকে ১৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। গতকাল কারওয়ানবাজার, পলাশী বাজারসহ রাজধানীর বেশ কয়েকটি বাজারে এমন দামেই টমেটো বিক্রি হতে দেখা গেছে।

এক মাসের ব্যবধানে টমেটোর দাম এত বৃদ্ধি পাওয়া প্রসঙ্গে কারওয়ানবাজারের ব্যবসায়ী আলতাফ হোসেন বলেন, টমেটোর উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু এর সঙ্গে বৃদ্ধি পেয়েছে টমেটো থেকে সস তৈরি করে বিদেশে রপ্তানির পরিমাণও। এর প্রভাবে দেশের বাজারে টমোটের ঘাটতি থাকায় দাম বৃদ্ধি পেয়েছে।

বাংলাদেশ এগ্রো প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য নাজমুল হক বলেন, প্রক্রিয়াজাতকরণের কারণে টমেটোর দাম বৃদ্ধির কোনো কারণ নেই। কারণ দেশে আগের তুলনায় টমেটোর উৎপাদন দ্বিগুণ হয়েছে। ফলে বেশিরভাগ রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব খামার কিংবা নির্দিষ্ট খামারি রয়েছে। সাধারণ বাজারে তাই এর কোনো প্রভাব পড়ে না।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মতে, প্রতি ১০০ গ্রাম টমেটোতে রয়েছে ৩৫১ মাইক্রো গ্রাম ক্যারোটিন। ক্যারোটিন মানবদেহে ভিটামিন এ যোগান দেয়। অর্থাৎ দৃষ্টিশক্তি প্রখর রাখে ও রেটিনা সুস্থ রাখে। পাকা-টমেটোতে ২৭ মি.গ্রাম ভিটামিন সি থাকে। যা দাঁত ও হাড়ের সুস্থতা বজায় রাখে। এ ছাড়া ০.১৩ মি.গ্রাম থায়ামিন আছে যা পরোক্ষভাবে স্নায়ুতন্ত্র, হৃৎপি- ও পরিপাকতন্ত্রের সুস্থতা রক্ষা করে। এ ছাড়া ০.০৬ মি.গ্রাম রিবোফ্লেভিন পাওয়া যায়। এটি বিভিন্ন গ্রন্থি ও কলা-ত্বক, চোখ, স্নায়ু ইত্যাদির সুস্থতা রক্ষা করে। টমেটোতে সামান্য পরিমাণে লৌহও পাওয়া যায়। প্রতি ১০০ গ্রাম পাকা-টমেটোতে ০.৪০ মি.গ্রাম লৌহ থাকে। হাড় ও দাঁত গঠনকারী ক্যালসিয়াম ৪৮ মি.গ্রাম পরিমাণ পাওয়া যায়। এ ছাড়া রয়েছে ২০ মি.গ্রাম ফসফরাস।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে