আতঙ্কে শোবিজের অনেকে

  শাহজাহান আকন্দ শুভ

১৯ মে ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১৯ মে ২০১৭, ০০:৩৩ | প্রিন্ট সংস্করণ

বনানীতে দুই ছাত্রী ধর্ষণকাণ্ডের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আসামি নাঈম আশরাফকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। ইতোমধ্যে জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম আশরাফ দুই শিক্ষার্থীর একজনকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। ওদিকে নাঈম আশরাফের ঘনিষ্ঠ গ্ল্যামার জগতের নায়িকা, গায়িকা, মডেলসহ তার সঙ্গে সেলফিতে থাকা ব্যক্তিরা আতঙ্কে রয়েছেন। ঝামেলা এড়াতে তারা ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাঈম আশরাফের সঙ্গে থাকা সেলফি ডিলিট করে দিচ্ছেন।

বুধবার রাতে মুন্সীগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করা হয় নাঈম আশরাফ ওরফে হাসান মোহাম্মদ হালিমকে। গতকাল দুপুরে ধর্ষণ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে হাজির করে। আদালত শুনানি শেষে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। তার পক্ষে আদালতে জামিনের আবেদন করেন আইনজীবী খায়রুল ইসলাম লিটন। গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে পুলিশের একটি বিশেষ টিম নাঈম আশরাফকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন। জিজ্ঞাসাবাদের প্রথম দিনেই সে ধর্ষণকা-ের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, গ্রেপ্তার এড়াতে কয়েক দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের একটি হলে আত্মগোপন করেন। পরে যখন বুঝলেন হলে থাকলে ধরা পড়ে যাবেন তখন চলে যান মুন্সীগঞ্জে দূরসম্পর্কের এক আত্মীয়ের বাড়িতে। সেখান থেকেই বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নাঈম আশরাফ গ্রেপ্তার হওয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা মহানগর পুলিশের কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, রিমান্ডে চার আসামি অভিযোগ ‘অনেকটাই স্বীকার করেছে’। এক প্রশ্নে তিনি বলেন, নারী নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণের যে সংজ্ঞা দেওয়া সে অনুযায়ী অভিযোগের সমর্থনে প্রাথমিক কিছু তথ্য তারা জিজ্ঞাসাবাদে পেয়েছেন। নাঈমও প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপরাধের বিষয়টি ‘স্বীকার করেছেন’ বলেও দাবি করেন মনিরুল ইসলাম।

সিরাজগঞ্জের কাজীপুরের গ্রামের বাড়িতে নাঈম আশরাফের নাম হালিম। ঢাকায় এসে নিজের নাম পাল্টে হন নাঈম আশরাফ। এই নামে ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান খুলে ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন। ধূর্ত প্রকৃতির নাঈম আশরাফ এ পর্যন্ত দুুটি বিয়ে করেছে। ‘ই-মেকার্স’ নামে একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান খুলে ২০১৪ সালে ভারতের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী অরিজিৎ সিংয়ের কনসার্টের আয়োজন করেন। এ ছাড়া গত বছর ভারতের আরেক শিল্পী নেহা কাক্কারকে নিয়ে ‘নেহা কাক্কার লাইভ ইন কনসার্ট’ অনুষ্ঠানের আয়োজনও করেন নাঈম আশরাফ। এসব অনুষ্ঠান আয়োজনের কারণে নাঈম আশরাফের সঙ্গে গ্ল্যামার জগতের নায়িকা, গায়িকা, মডেলসহ অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তির সখ্য গড়ে ওঠে। তাদের সঙ্গে মাঝে মধ্যেই সেলফি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দিতেন নাঈম আশরাফ। তার এই সেলফির কারণে এখন গ্ল্যামার জগতের অনেকেই আতঙ্কে রয়েছেন। ইতোমধ্যে নাঈম আশরাফের সঙ্গে ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় একটি বেসরকারি টেলিভিশনের পদস্থ নারী কর্মকর্তার চাকরি গেছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, যেসব মডেল, নায়িকা, গায়িকা নাঈম আশরাফের সঙ্গে সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করেছিলেন তারা সরিয়ে ফেলছেন। অভিনেত্রী মৌসুমী হামিদ গতকাল বিকালে নিজের ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাস দেন। এতে তিনি লেখেন, ‘আমরা যারা মিডিয়াতে কাজ করি, প্রতিনিয়ত আমাদের অনেক কাজের জন্য অনেকে কল দেয়। কথা বলে... দেখা যায় সব কাজ হয় না কিন্তু পরিচয় হয়....২য় বার কাজের জন্য একই মানুষ যদি কল দেয় বা দেখা করতে আসে তখন যদি সে একটা ছবি তুলতে চায় তখন কি না করা যায়। রেপিস্ট এর কপালে কি লেখা থাকে ও রেপিস্ট?

আর যেই মানুষকে আবার অনেকে চেনে ও...মিডিয়ার মানুষদের নিয়েই তার কাজ। তখন কেমনে বুঝবে যে সে একটা রেপিস্ট... আর এই ছবিগুলো যারা প্রাণপণে ভাইরাল করার চেষ্টা করছে তাতে কি কারো দোষ ঢাকা পড়বে...?

যাই হোক আশার কথা আসামি ধরা পড়ছে। এখন কি বিচার হয় দেখা যাক।

পুলিশ চাইলে সব পারে ...।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে