সংলাপে বক্তারা

ধনী-দরিদ্রের মধ্যে অসমতা ক্রমেই ঊর্ধ্বমুখী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির প্রভূত অগ্রগতি সত্ত্বেও সমাজে বিদ্যমান ধনী ও দরিদ্র মানুষের মধ্যে অসমতা আজ ক্রমেই ঊর্ধ্বমুখী। আয় ও সম্পদের বৈষম্য বাড়ছে, সম্পদ পুঞ্জীভূত হচ্ছে মুষ্টিমেয় মানুষের হাতে।

গতকাল রাজধানীর প্রেসক্লাবে সুশাসনের জন্য প্রচারাভিযান (সুপ্র) আয়োজিত সভায় বক্তাদের কথায় এসব মতামত উঠে আসে। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাÑ এসডিজি অর্জনে প্রগতিশীল কর সংস্কার শীর্ষক জাতীয় সংলাপ শিরোনামে অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান।

তিনি বলেন, আমি মনে করি আমরা দরিদ্র নই। এদেশে অপচয় বেশি হয়। রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে এর পরিমাণ বেশি; যার কারণে সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবহার হচ্ছে না। কর প্রদান প্রসঙ্গে অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, কর প্রদানে ব্যাপক বৈষম্য থাকায় সরকার তার রাজস্ব আয় হারাচ্ছে। আমি জানি যারা কর ফাঁকি দেয় তারা ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকে। এটি আমাদের সিস্টেমের সমস্যা। তবে খুব তাড়াতাড়ি আমরা তা নির্মূল করতে না পারলেও কমিয়ে আনার চেষ্টা করছি।

অক্সফাম ইন বাংলাদেশ প্রোগ্রামের ম্যানেজার ড. খালিদ হোসেন অর্থনৈতিক সমীক্ষা তুলে ধরে বলেন, পৃথিবীর অর্ধেক মানুষের সম্পদ রয়েছে ৮ জন মানুষের কাছে। এ বিপুল পরিমাণ সম্পদ তাদের বুদ্ধি আর শ্রম দিয়ে করা সম্ভব নয়। তারা কর ফাঁকি ও শ্রমিকের মজুরি ফাঁকি দিয়ে এই বিপুল সম্পদ গড়েছেন। এ কারণে বিশাল বৈষম্যর সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমানে এই বৈষম্য আমাদের সমাজে বিদ্যমান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে