শ্রীপুরের বন বিভাগের ৫০ একর ভূমি বেদখল

  আ. লতিফ, শ্রীপুর

০৭ অক্টোবর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় রাজেন্দ্রপুর পূর্ব রেঞ্জের সূর্য নারায়ণপুর বিটের চাওবন এলাকায় বন বিভাগের প্রায় ৫০ একর ভূমি ৩০টি পরিবার জবর দখল করেছে।

সরেজমিনে কথা হয় গ্রামবাসীর সঙ্গে। তারা জানান, তাদের অনেকের নিজের জমি নেই। বনের জমিতে যুগ যুগ ধরেই আছেন তারা। গ্রামের ৩০টির বেশি পরিবারের দখলে রয়েছে প্রায় ৫০ একর বনভূমি। গ্রামবাসীরা এসব ভূমিতে গড়ে তুলেছে পেয়ারা বাগান। কেউ বা করছে আদা হলুদের চাষ। এ ছাড়া রোপণ করেছে নানা জাতের ফলদ বনজ বৃক্ষের গাছ। পুরো এলাকাই ঘন সবুজ গাছের ছায়া আবৃত। স্থানীয় কামাল, মোস্তফা, সামসুল ইসলামসহ অনেকেই বলেন, ওই জমিতে তারা ত্রিশ-চল্লিশ বছর যাবৎ পেয়ারা চাষ করে আসছেন। গ্রামবাসীদের অভিযোগ বনের লোকেরা গাছপ্রতি এক হাজার টাকা দাবি করেছে। টাকা না দিলে কেটে বনায়ন করে ফেলবে। বহুদিনের গড়ে তোলা পেয়ারা বাগান নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে রয়েছে উৎকণ্ঠা। সূর্য নারায়ণপুরের বিট কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান টাকা দাবির কথা অস্বীকার করে বলেন, ওই জমি বহু বছর যাবৎ গ্রামের লোক জবর দখল করে রেখেছে।

বন বিভাগ ভূমি উদ্ধার করতে গেলেই গ্রামের লোকের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পরতে হয়। সম্প্রতি ১৫ একর ভূমি উদ্ধার করে বনায়ন করা হয়েছে। রাজেন্দ্রপুরের রেঞ্জ কর্মকর্তা মাইনুর রহমান জানান, ওই জমি বহু পূর্ব থেকে জবর দখলে আছে। পর্যায় ক্রমে তা সামাজিক বনায়নের আওতায় এনে উপকারভোগীদের মধ্যে সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী বরাদ্দ দেওয়া হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে