শ্রীবরদীর ৩০ গ্রামের ৫০ হাজার মানুষ পানিবন্দি

  শ্রীবরদী প্রতিনিধি

১৯ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

টানা কয়েক দিনের ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার ভেলুয়া ও খড়িয়া কাজিরচর ইউনিয়নের ৩০টি গ্রামের ৫০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে আছেন। কর্মহীন হয়ে পড়েছেন প্রায় ২৫ হাজার মানুষ। চরম সংকট দেখা দিয়েছে গোখাদ্যের।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামগুলো হচ্ছেÑ ভেলুয়া ইউনিয়নের লক্ষ্মীডাংরী, চকবন্দ, চকবন্দি নয়াপাড়া, চকবন্দি মধ্যপাড়া, চকবন্দি নিজপাড়া, চকবন্দি চকপাড়া, ভেলুয়া দষ্টিপাড়া, তিনানী ভেলুয়া, ঢনঢনিয়া, শিমুলচড়া, বলদিয়ারচর, চাংপাড়া ও ডাকরাপাড়া; খড়িয়াকাজিরচর ইউনিয়নের ভাংগারপাড়া, রুপারপাড়া, বন্ধ বৈষ্ণবের চর, হালগড়া, মাদারপুর, গড়পাড়া, লংগরপাড়া, কাজিরচর, পোড়াগর, বীরবান্দা ও দক্ষিণ খড়িয়া। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, ভেলুয়া ও খড়িয়াকাজিরচর ইউনিয়নসহ উপজেলায় ১ হাজার ২শ হেক্টর রোপা আমন ক্ষেত পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে; আংশিক নিমজ্জিত হয়েছে ৬শ হেক্টর রোপা আমন ক্ষেত। নষ্ট হয়েছে ১৭ হেক্টর জমির সবজি জাতীয় ফসল বেগুন, করলা, পটোল, ধুন্দল, কুমড়া ও কাঁকরল।

ভেলুয়া ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের পানিবন্দি সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমরা ৩ দিন ধরে পানিবন্দি অবস্থায় আছি। গোখাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির চরম সংকট দেখা দিয়েছে। এ ছাড়াও পানি বৃদ্ধির কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছি।

ভেলুয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মিয়া বলেন, ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তার ইউনিয়নের প্রায় ১৬টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এতে ২০ হাজার মানুষ কর্মহীনসহ বিভিন্ন সমস্যায় পড়েছে।

বন্যায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হওয়ার খবরে বৃহস্পতিবার বিকালে জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এটিএম জিয়াউল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা নাছরিন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রকিবুল হাসান বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শন করেন।

শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা নাসরিন জানান, বন্যাকবলিত মানুষের তালিকা করতে স্থানীয় প্রতিনিধিদের জানানো হয়েছে।

শুক্রবার সকালে স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রকৌশলী এ.কে.এম ফজলুল হক বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন এবং বন্যার্তদের মাঝে এক টন চাল ও শুকনো খাবার বিতরণ করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে