ধামরাইয়ে সংঘর্ষে আহত ১০ আটক ৬

  ধামরাই প্রতিনিধি

১৯ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকার ধামরাই উপজেলার বড় চন্ডাইল গ্রামে অসামাজিক কার্যকলাপে বাধা দেওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার রাতে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের ধামরাই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় ৬ জনকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে। আটককৃতদের আসামি করে গতকাল শুক্রবার একটি মামলা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানান, উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের বড় চন্ডাইল গ্রামের মৃত উসিম উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে তার বাড়িতে পতিতালয় চালিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে ৪ তরুণীকে নিয়ে আসে চার যুবক। এ সময় এলাকাবাসী স্থানীয় ইউপি সদস্য বোরহান উদ্দিনকে সঙ্গে নিয়ে সাইফুল ইসলাম বাড়িতে গিয়ে ওই চার তরুণীর পরিচয় জানতে চান। এ সময় সাইফুল ইসলাম ও তার ভাই সমেজ উদ্দিন, বাবু মিয়া, সাকিল, সেলিম গং ইউপি সদস্যদের ওপর হামলা চালায়। এতে ইউপি সদস্য বোরহান উদ্দিন, সরুত আলী, হারুন, শফিক, সমেজ উদ্দিনসহ ১০ জন আহত হন। পরে এলাকাবাসী সাইফুল ইসলাম, সমেজ উদ্দিন, সেলিম, বাবু, জাহানারা, শেফালিকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। এ ঘটনায় এলাকার শত শত নারী-পুরুষ আটকৃতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে গত বৃহস্পতিবার রাতে ধামরাই থানা এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন।

পরে ধামরাই থানার সেকেন্ড অফিসার মো. মাসুদুর রহমান এলাকাবাসীর দাবি পূরণ করা হবে আশ্বাস দিলে তারা ফিরে যান। এ বিষয়ে কুল্লা ইউপি সদস্য বোরহান উদ্দিন জানান, এলাকার যুব সমাজকে ধ্বংস করে দিল ওই পতিতালয় ব্যবসায়ীরা। এর প্রতিবাদ আমরা করতে গেলে আমাদের ওপর হামলা করে তারা।

এ ব্যাপারে ধামরাই থানার সেকেন্ড অফিসার মাসুদুর রহমান বলেন, এলাকাবাসী যাদের আটক করে থানায় সোপর্দ করেছে, তাদের বিরুদ্ধে মামলা নেওয়া হয়েছে। আজ শনিবার তাদের আদালতে প্রেরণ করা হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে