আলোকময় বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেন মুহিত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৫ জুন ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আগামী অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘জীবনের শ্রেষ্ঠ বাজেট’ বলে আখ্যায়িত করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তার দাবি, প্রস্তাবিত বাজেটে প্রশাসনিক সংস্কারের মাধ্যমে জাতিকে উন্নত অর্থনীতির দেশ গড়ার স্বপ্ন দেখিয়েছেন তিনি। তার এই স্বপ্নমূলে রয়েছে শান্তিপ্রিয়, উন্নত এবং ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত আলোকময় বাংলাদেশ গড়ে তোলার অঙ্গীকার।

গত বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে আগামী ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। আকারে দেশের ইতিহাসে এটিই সবচেয়ে বড় বাজেট। কিন্তু তার এই বড় বাজেট নিয়ে সমালোচনাও হচ্ছে অনেক বেশি। বিশেষ করে ভ্যাট আইন কার্যকরের মাধ্যমে ১৫ শতাংশ ভ্যাট আদায়, ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র খাতকে করের আওতায় আনা এবং বিভিন্ন খাতে করহার বাড়ানোর প্রস্তাব নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা চলছে সর্বত্র।

আগামীর বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় রয়েছে অর্থমন্ত্রীর বাজেট বক্তৃতায়। রয়েছে কিছু দিকনির্দেশনাও। তিনি বলেন, নিশ্চিত করতে হবে উৎপাদন নৈপুণ্যের উৎকর্ষায়ণ। এ জন্য প্রশাসনিক সংস্কারের মাধ্যমে সুশাসন প্রতিষ্ঠার বর্তমান ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। গড়ে তুলতে হবে কার্যকর মানব-মূলধন মজুদ। কণ্টকমুক্ত রাখতে হবে ব্যক্তি খাত বিকাশের পথকে। তদুপরি আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সম্প্রসারণের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখতে হবে। এসব কাজ পরিকল্পিত উপায়ে সম্পাদনের জন্য আমরা রূপকল্প ২০৪১-এর আওতায় প্রণয়ন করতে যাচ্ছি দ্বিতীয় প্রেক্ষিত পরিকল্পনা। এর স্বপ্নমূলে থাকবে একটি শান্তিপ্রিয়, উন্নত এবং ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সুস্থ-সবল আলোকময় বাংলাদেশ।

স্বপ্ন পূরণে সমগ্র জাতিকে পাশে চেয়ে বাজেট বক্তৃতায় শেষ দুই লাইনে অর্থমন্ত্রী বলেন, দিন এসেছে দল-মত, হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে সবাই মিলে সুপথ ধরে সামনে এগিয়ে চলার। আসুন আমরা এখন প্রস্তুতি নিই ২০৪১ সালের সমৃদ্ধ, উন্নত, সুখী ও শান্তিময় বাংলাদেশের জন্য।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে