লাদাখ সীমান্তে ভারত-চীন সেনাদের সংঘর্ষ

পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত, বেইজিংয়ের অস্বীকার

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৭ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০১৭, ০০:২১ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারত ও চীনের মধ্যে লাদাখ সীমান্তে দুই দেশের সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয়পক্ষের সেনাসদস্যরা পাথর ছোড়াছুড়ি করেন। ভারতের অভিযোগ, চীনা সেনারা অতর্কিত অনুপ্রবেশের চেষ্টা করলে তারা বাধা দেন। এ সময় পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটে। তবে চীনা কর্তৃপক্ষ ভারতের এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে। মঙ্গলবার এ ঘটনার পর গতকাল বুধবার দুই দেশের সেনাদের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। খবর এনডিটিভি ও বিবিসি।

দিল্লির দাবি, ভারতের ৭১তম স্বাধীনতা দিবসে মঙ্গলবার সকাল ৬টা-৯টার মধ্যে লাদাখের ফিঙ্গার ফোর ও ফিঙ্গার ফাইভ এলাকা দিয়ে দুবার সীমান্ত ডিঙানোর চেষ্টা করেন পিএলএর সেনারা। কিন্তু ভারতের সতর্ক সেনাদের প্রতিরোধে তাদের চেষ্টা উভয় বারই ভ-ুল হয়ে যায়।

মানববন্ধন তৈরি করে চীনা সেনাদের অনুপ্রবেশের চেষ্টায় বাধা সৃষ্টি করেন ভারতীয় সেনারা। বাধার মুখে ভারতীয় সেনাদের লক্ষ্য করে পাথর ছুড়তে শুরু করেন তারা। জবাবে ভারতীয় বাহিনীও পাথর ছোড়ে। এ সময় উভয় বাহিনীর কয়েক সদস্য আহত হন। ভারতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এ ঘটনায় উভয় দেশের কয়েক সদস্য সামান্য আহত হয়েছেন। তবে কিছুক্ষণের মধ্যে দুই দেশের বাহিনী পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে নিজ নিজ অবস্থানে ফিরে গেলে পরিস্থিতি শান্ত হয়। লাদাখের ফিঙ্গার ফোর এলাকায় ঢুকে পড়তে সক্ষম হন চীনা সেনারা। তবে প্রতিরোধের মুখে ফিরে যান তারা। এ এলাকার মালিকানা দাবি করে আসছে ভারত ও চীন উভয়েই।

এদিকে লাদাখে সীমান্ত লঙ্ঘনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ। গতকাল চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানান, এমন কোনো ঘটনার কথা তার জানা নেই। সীমান্তে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার প্রশ্নে চীন সব সময়ই দায়িত্বশীল বলেও দাবি করেছে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। চীনের বাহিনী সব সময় লাইন অব অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল বা এলএসিকে মেনে চলে বলে বুধবার মন্তব্য করেছেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হুয়া চুনয়িং। মিডিয়ার সঙ্গে নিয়মিত সাক্ষাৎকারে তাকে মঙ্গলবারের ঘটনা সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়েছিল। চীনা সেনাবাহিনী সীমান্ত লঙ্ঘন করে ভারতীয় এলাকায় ঢোকে এবং তার জেরেই অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হয় বলে ভারতের অভিযোগ। হুয়া চুনয়িং সে অভিযোগ নাকচ করে বলেছেন, লাদাখে দুই বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের কোনো খবর তার জানা নেই। তিনি বলেন, চীন-ভারত সীমান্তে শান্তি বজায় রাখতে চীন অঙ্গীকারাবদ্ধ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে