advertisement
Dr Shantu Kumar Ghosh
advertisement
Dr Shantu Kumar Ghosh
advertisement
advertisement

ডিবি নয়, এই দুই তরুণকে আটক করে কাউন্টার টেররিজম

সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি
১৫ মে ২০১৯ ১৮:১০ | আপডেট: ১৫ মে ২০১৯ ১৮:১০

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলায় একটি মুঠোফোন দোকানের মালিক সাইদ আহমেদ খান আকাশ (২০) ও কর্মচারী জুয়েল বেপারীকে (২০) গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে থানায় অভিযোগ করা হয়েছিল।

পরবর্তীতে এ ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, ডিবি নয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই দুই তরুণকে আটক করে নিয়ে যায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। সংশ্লিষ্ট অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ততা না থাকায় জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের পরিবারের কাছে জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

আজ বুধবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর শাহীন শাহ্ পারভেজ বলেন, ‘দুই তরুণের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনা জানার পরপরই এসপি সাহেবের নির্দেশে ডিবি, কাউন্টার টেররিজম ইউনিটসহ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটে বেতার বার্তা পাঠিয়ে অবহিত করা হয়। পরে জানা যায়, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ইউনিট তাদের আটক করে। কোনো অপরাধের সঙ্গে সম্পৃক্ততা না পেয়ে তাদের পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।’

ওসি আরও বলেন, ‘যে দুই তরুণকে আটক করা হয়েছিল তাদের সাথে থাকা টাকা ও অন্যান্য জিনিসপত্রও পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ওই পরিবারের সাথেও আমার কথা হয়েছে। তারা তাদের সন্তানকে ফিরে পেয়েছে। তাদের আর কোনো অভিযোগ নেই।’

এর আগে সোমবার দুপুর ১টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকার বদরুদ্দীন শপিং টাওয়ারের নিচতলার আকাশ টেলিকম নামে একটি দোকান থেকে নগদ টাকাসহ নিখোঁজ হন ওই দুজন। এ ঘটনায় নিখোঁজ আকাশের মা আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।