advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বিপ্লবী তিতুমীর শহীদ হন

আমাদের সময় ডেস্ক
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:৩০
advertisement

সৈয়দ মীর নিসার আলী তিতুমীর [১৭৮২-১৮৩১] ব্রিটিশবিরোধী বিপ্লবী। জমিদার ও ব্রিটিশদের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে সংগ্রামী এ যোদ্ধা তার বাঁশের কেল্লার জন্য বিখ্যাত হয়ে আছেন। ১৮৩১ সালের ১৯ নভেম্বর ব্রিটিশ সেনাদের সঙ্গে যুদ্ধরত অবস্থায় ওই কেল্লাতে শহীদ হন তিতুমীর।

পশ্চিমবঙ্গের চব্বিশ পরগনা জেলার বশিরহাট মহকুমার চাঁদপুরে ১১৮৮ বঙ্গাব্দের ১৪ মাঘ জন্মগ্রহণ করেন। তার পরিবারের লোকেরা নিজেদের হজরত আলীর (রা) বংশধর বলে দাবি করতেন। তিতুমীর ছিলেন বাংলা, আরবি ও ফার্সি ভাষায় দক্ষ। ইসলামি ধর্মশাস্ত্র, আইনশাস্ত্র, দর্শন, তাসাওয়াফ ও যুক্তিবিদ্যায়ও সুপ-িত ছিলেন। তিনি ১৮২২ সালে হজব্রত পালনের জন্য পবিত্র মক্কায় যান এবং সেখানে বিখ্যাত ইসলামি ধর্মসংস্কারক ও বিপ্লবী নেতা সাইয়িদ আহমদ বেরলভির সান্নিধ্য লাভ করেন। সাইয়িদ আহমদ তাকে বাংলার মুসলমানদের অনৈসলামিক রীতিনীতির অনুশীলন এবং বিদেশি শক্তির পরাধীনতা থেকে মুক্ত করার কাজে উদ্বুদ্ধ করেন।

১৮২৭ সালে দেশে ফিরে এ লক্ষ্যে বিশেষ করে তাঁতি ও কৃষকদের মধ্যে তিনি ব্যাপক প্রচারকার্য চালান। এতে জমিদারদের সঙ্গে বিরোধের জেরে সংঘর্ষও হয়। তিতুমীর ১৮৩১ সালের অক্টোবরে নারকেলবাড়িয়ায় এক দুর্ভেদ্য বাঁশের কেল্লা নির্মাণ করেন। ১৮৩১ সালের ১৪ নভেম্বর ইংরেজরা তাদের গোলন্দাজ বাহিনী নিয়ে বাঁশের কেল্লায় আক্রমণ চালায়। যুদ্ধে বহুসংখ্যক অনুসারীসহ তিতুমীর শহীদ হন।

advertisement