advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

এডিপি বাস্তবায়ন নিয়ে অসন্তোষ

আব্দুল্লাহ কাফি
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:৩০
advertisement

বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন নিয়ে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। নির্দিষ্ট সময়ে প্রকল্পের কাজ শেষ করতে না পারা, মাঠপর্যায়ে তদারকি না করা, প্রকল্পে বারবার সংশোধনী, সময়ক্ষেপণ, ব্যয় বাড়াতে বারবার প্রস্তাব দেওয়া, বরাদ্দ করা অর্থ খরচ করতে না পারাসহ নানা কারণে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে এমন অসন্তোষ বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

প্রকল্প বাস্তবায়নে ধীরগতির কারণ ও গতি ফেরানোসহ বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করতে পরিকল্পনা কমিশন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসবে আজ মঙ্গলবার। বৈঠকে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলবেন। পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন প্রকল্প তদারকি বিভাগ বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) সূত্রে জানা গেছে, চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের (জুলাই-অক্টোবর) চার মাসে অনেক মন্ত্রণালয় ও বিভাগ ৫ শতাংশও এডিপি বাস্তবায়ন করতে পারেনি। তবে বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয় ও বিভাগ ২০ শতাংশের বেশি এডিপি বাস্তবায়ন করেছে। সার্বিক বিবেচনায় যে পরিমাণ অগ্রগতি হওয়ার কথা ছিল, সে পরিমাণ

না হওয়ায় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

আইএমইডি সূত্র জানায়, গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রথম চার মাসে এডিপি বাস্তবায়ন হয়েছে ১৪ দশমিক ২৫ শতাংশ। গত অর্থবছরের একই সময়ে এ হার ছিল ১৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ। এ হিসাবে বাস্তবায়নের হার বেড়েছে শূন্য দশমিক ৫০ শতাংশ। এ চার মাসে মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো খরচ করতে পেরেছে ৩০ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা। গত বছর খরচ হয় ২৪ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা। সার্বিকভাবে খরচের পরিমাণ বাড়লেও এখনো ১১টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের এডিপি বাস্তবায়ন ৫ শতাংশের নিচেই রয়েছে।

সম্প্রতি পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, অর্থবছরের শুরুতে বৃষ্টি মৌসুম থাকাসহ নানা কারণে এডিপি বাস্তবায়ন কম হয়। তবে শুকনো মৌসুমে বাস্তবায়নের হার বাড়ে। এ বছর বাস্তবায়নের হার আরও বাড়াতে প্রচেষ্টা চালানো হবে।

আইএমইডি সূত্রে জানা গেছে, গেল চার মাসে এডিপি বাস্তবায়ন করতে পারেনি এমন মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর মধ্যে রয়েছে- রেলপথ, শিল্প, নৌপরিবহন, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন, সুরক্ষা সেবা বিভাগ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, খাদ্য, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ, আইন ও বিচার বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, পরিকল্পনা বিভাগ ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

অন্যদিকে ২০ শতাংশেরও বেশি এডিপি বাস্তবায়ন করতে পারা মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর মধ্যে রয়েছে- পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগ, ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়, বিদ্যুৎ বিভাগ, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. নূরুল আমিন আমাদের সময়কে জানান, প্রকল্প বাস্তবায়নে যেন গতি আসে এবং যেসব সমস্যা রয়েছে তা চিহ্নিত করে দিকনির্দেশনা দেবেন পরিকল্পনামন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রতিবছরই এডিপির আকার বাড়ছে। খরচও বাড়ছে। তবে প্রকল্প বাস্তবায়নে যেন শিথিলতা না আসে, সেদিকে নজর বাড়ানো হবে।

জানা গেছে, চলতি অর্থবছরে ২ লাখ ১৫ হাজার ১১৪ কোটি টাকার এডিপি নির্ধারণ করা হয়েছে।

advertisement