advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকা মা-ছেলেকে চাপা দিল ট্রাক

আমাদের সময় ডেস্ক
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:৫৪
advertisement

আদরী বেগম ও তার শিশুসন্তান সম্পার (৬) আর নওগাঁ শহরে যাওয়া হলো না। নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের ডাক্তারের মোড় এলাকায় বাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকাবস্থায় বেপরোয়া ট্রাকচাপায় তারা নিহত হয়েছেন। গতকাল সকাল পৌনে ৯টার দিকে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে। আদরী নওগাঁ সদর উপজেলার ধুপাইপুর গ্রামের শহীদ হোসেনের স্ত্রী। এ ছাড়া গতকাল পৃথক দুর্ঘটনায় সড়কে প্রাণ গেছে আরও পাঁচজনের। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

নওগাঁ : সদর উপজেলার ধুপাইপুর গ্রামের শহীদ হোসেন স্ত্রী আদরী ও সন্তান সম্পাকে নিয়ে নওগাঁ শহরে যাওয়ার জন্য সকালে বাড়ি থেকে বের হন। ডাক্তারের মোড়ে সড়কের পাশে তারা বাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়েছিলেন। এ সময় ধামইরহাটগামী একটি ট্রাক বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাসকে ওভারটেক করতে গিয়ে তাদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই আদরী ও তার মেয়ে সম্পা মারা যান। ঘটনার পর পরই স্থানীয়রা ট্রাকটি আটক করলেও চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ফায়সাল বিন আহসান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নোয়াখালী : সোনাইমুড়ী উপজেলার বজরা ইউনিয়নে যাত্রীবাহী বাসচাপায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। গত রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের আপানিয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) : ইন্দুরকানীতে ট্রাকের ধাক্কায় যাত্রীবাহী বাস খালে পড়ে ৩০ যাত্রী আহত হন। গতকাল সকালে উপজেলার চরবলেশ্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ট্রাকটি আটক করেছে।

ওসমানীনগর : সিলেটের ওসমানীনগরে এসএ পরিবহনের কাভার্ডভ্যানচাপায় তাওহিদা বেগম (৫) নামে এক শিশু নিহত হয়। গতকাল সকাল ৭টার দিকে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের চকআতাউল্যা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাওহিদা উপজেলার চকআতাউল্যা গ্রামের আবদুল মতিনের মেয়ে।

কিশোরগঞ্জ : বাজিতপুর উপজেলার পিরিজপুর বাজার এলাকায় গতকাল দুপুরে ট্রাক্টরের সঙ্গে সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে লাউত মিয়া নামে অটোরিকশার এক যাত্রী নিহত হন। একই দুর্ঘটনায় আহত হন অটোরিকশার আরও দুই যাত্রী। লাউত নেত্রকোনার খালিয়াজুড়ী উপজেলার লিপসা গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে।

advertisement