advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মানবতাবিরোধী অপরাধের আসামি ‘জল্লাদ’ সিদ্দিক

নিজস্ব প্রতিবেদক জামালপুর
১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৯ ০০:৫৪
advertisement

জামালপুরের সরিষাবাড়ীর পুঠিয়ারপাড়া গ্রামের চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধী আবু বক্কর সিদ্দিক ওরফে সিদ্দিক আলবদর ওরফে জল্লাদ সিদ্দিকের (৬৮) বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মামলা হয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালÑ ঢাকায় গত ৫ নভেম্বর মামলাটি স্থানান্তর করা হয়। বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আব্দুল বারী-২ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মামলায় তার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিকামী নিরীহ বাঙালিদের পাকবাহিনীর হাতে সোপর্দ, হত্যা ও হত্যায় সহযোগিতাসহ মানবতাবিরোধী বিভিন্ন অভিযোগ উল্লেখ করা হয়। ইজারাপাড়া (গোনারপাড়া) গ্রামের মৃত তোফাজ্জল হোসেনের স্ত্রী মোছা. জহুরা বেগম বাদী হয়ে গত ১৪ অক্টোবর সিআর আমলি আদালত সরিষাবাড়ী, জামালপুরে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় পোগলদিঘা ইউপি চেয়ারম্যান সামস উদ্দিন, ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ফজলুল হক, আটজন মুক্তিযোদ্ধা ও জল্লাদ সিদ্দিকের ভাই মাওলানা আব্দুর রশিদসহ মোট ২৬ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।

মূল এজাহারের সঙ্গে এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরযুক্ত স্মারকলিপি ও বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদসহ ২০ ফর্দের অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোলায়মান কবীর মামলাটি আমলে নিয়ে জল্লাদ সিদ্দিকের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল, ঢাকার বিচারক বরাবর পাঠিয়েছেন।

মামলার সাক্ষী (আসামির ভাই) আব্দুর রশিদের অভিযোগ, আসামি মামলার পর থেকে বাদী ও সাক্ষীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। তার (রশিদ) বাড়ির দিকে আসামি সিসি ক্যামেরা বসিয়ে গতিবিধি নজরে রাখছে। জোরপূর্বক সাক্ষীর বাড়ির গাছপালা কেটে নিচ্ছে। তার ভয়ে কেউ প্রতিবাদের সাহস পাচ্ছে না।

advertisement