advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মাকে রেখে চলে গেল ট্রেন, অবশেষে ছেলেকে উদ্ধার

ভৈরব প্রতিনিধি
১৭ জানুয়ারি ২০২০ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৬ জানুয়ারি ২০২০ ১১:৩৬ পিএম
advertisement

৯ বছরের ছেলে সিফাতকে ট্রেনে বসিয়ে রেখে মোবাইলে ফ্ল্যাক্সিলোড করতে যান মা। তিনি ফিরে আসার আগেই ঢাকার উদ্দেশে স্টেশন ছেড়ে চলে যায় ট্রেন। ছেলেকে হারিয়ে শুরু হয় মায়ের আর্তনাদ। পরে দেড় ঘণ্টার মধ্যেই শিশুটিকে উদ্ধার করে রেলওয়ে পুলিশ। গত বুধবার ভৈরব রেলওয়ে স্টেশনে ঘটে এ ঘটনা।

advertisement 3

সিফাতের মা লিপি বেগম ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কিশোরগঞ্জের গচিয়াহাটা রেল স্টেশন থেকে বুধবার বিকালে কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনে উঠে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশে রওয়ানা হন। ট্রেনটি ভৈরব রেলস্টেশনে বিরতি দিয়ে ইঞ্জিন ঘুরানোর সময় ছেলে সিফাতকে বসিয়ে রেখে মোবাইলের দোকানে ফ্ল্যাক্সি লোড করতে যান লিপি বেগম। তিনি ফিরে আসার আগেই ট্রেন চলে যাওয়ায় মায়ের চিৎকারে রেলস্টেশনে লোকজন জড়ো হয়। বিষয়টি অবগত হয়ে ভৈরব রেলওয়ে থানার ওসি মো. ফেরদৌস আহমেদ বিশ্বাস নরসিংদীর রেলওয়ে ফাঁড়ির পুলিশকে ঘটনা অবহিত করেন। পরে সিফাতকে নরসিংদী রেল স্টেশনে ট্রেন থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। সে কিশোরগঞ্জের গচিহাটা এলাকার মিজান মিয়ার ছেলে। নরসিংদী ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) ফিরোজ আহমেদ বলেন, সিফাতকে ট্রেন থেকে উদ্ধার করে তার মায়ের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

advertisement 4
advertisement