advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দেশে করোনায় আরও ৫০ মৃত্যু শনাক্ত ১৭৪২

নিজস্ব প্রতিবেদক
৬ মে ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ৫ মে ২০২১ ২২:২৫
advertisement

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৫০ জন, যা গত পাঁচ সপ্তাহের মধ্যে সর্বনিম্ন মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৭৪২ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, গত বছরের ৮ মার্চ বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। দেশে করোনা রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যু হয়েছিল। করোনার প্রথম টেউ একদিন সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৩০ জুন ৬৪ জন। আর করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছে ১৯ এপ্রিল ১১২ জন। করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৫০ জন, যা গত পাঁচ সপ্তাহের মধ্যে সর্বনিম্ন। এর আগে গত ৩০ মার্চ ৪৫ জনের মৃত্যুর তথ্য জানয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এর পর থেকে মৃত্যু বাড়তে থাকে। গত ৩৫ দিনের মধ্যে কোনো দিন ৫০-এর

নিচে মারা যায়নি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ হাজার ২৮৪টি নমুনা পরীক্ষার মাধ্যমে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৭৪২ জন। ২৪ ঘণ্টার নমুনা পরীক্ষায় রোগী শনাক্তের হার ৮ দশমিক ৫৯ জন। দেশে এখন পর্যন্ত ৫৫ লাখ ৬০ হাজার ৬৭৮টি নমুনা পরীক্ষা করে রোগী শনাক্ত হয়েছে ৭ লাখ ৬৭ হাজার ৩৩৮ জন। মোট নমুনা পরীক্ষায় রোগী শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮০ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৩ শতাংশ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ৫০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩২ এবং নারী ১৮ জন। মৃতদের বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ৬০ বছরের বেশি বয়সী ৩০ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৫ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২ জন রয়েছে। মৃতদের অঞ্চল বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ঢাকা বিভাগে ২৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৬, রাজশাহীতে ১, খুলনায় ৩ ও সিলেটে ২ জন রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ৩ হাজার ৪৩৩ জন। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১ হাজার ৭ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৬৯১, রংপুরে ৩১৯, খুলনায় ৪৫৩, বরিশালে ৩০৪, রাজশাহীতে ২৮৩, সিলেটে ৩০২ এবং ময়মনসিংহে ৭৪ জন রয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৪১১ জন এবং ছাড়া পেয়েছেন ৪২৯ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ১৯ হাজার ২১৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন করা হয়েছে ১ হাজার ৫৩৪ জন এবং ছাড়া পেয়েছেন ১ হাজার ৭৩৫ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৪৯ হাজার ২৮৭ জন।

গতকাল বুধবার দুপুরে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে প্রতিষ্ঠানটির মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ রোবেদ আমিন বলেন, আমরা সংক্রমণের পরিস্থিতি নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করছি। বিগত সাত দিনে পরিস্থিতি এখন আগের চেয়ে ভালো। একটা সময় ছিল যখন প্রতিদিন ৬ থেকে ৭ হাজারের বেশি করোনা শনাক্ত হতো। কিন্তু গত ৭ দিনে শনাক্তের হার প্রায় ৮ দশমিক ৭১-এ চলে এসেছে। এভাবেই সংক্রমণ যেন নিচের দিকে চলে আসে এবং এটা যেন অব্যাহত থাকে, এ জন্য আমাদের অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে। জনসাধারণকে চলাচল সীমিত করতে হবে। অবস্থা যদি সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রণ না করতে পারি, তা হলে সংক্রমণের হার আবারও যে কোনো সময় বেড়ে যেতে পারে। এ জন্য সবাইকে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

advertisement