advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বজ্রপাতে স্কুলছাত্রসহ ৬ জনের মৃ ত্যু

আমাদের সময় ডেস্ক
১২ মে ২০২১ ০০:০০ | আপডেট: ১১ মে ২০২১ ২২:৪৭
advertisement

পাঁচ জেলায় গতকাল বজ্রপাতে এক স্কুলছাত্রসহ ৬ জনের মৃত্যু হয়েছেন। এর মধ্যে পাবনার সাঁথিয়া ২ জন এবং নাটোরের বড়াইগ্রাম, নওগাঁর ধামইহাট, বাগেরহাটের মোল্লাহাট ও ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে ১ জন করে মারা যান। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

সাঁথিয়া (পাবনা) : গতকাল সকালে পৃথক দুটি স্থানে বজ্রপাতে স্কুলছাত্রসহ দুজন নিহত হন। একজন উপজেলার নাগডেমরা ইউনিয়নের ছোট পাথাইলহাট গ্রামের জয়নুল প্রামাণিকের ছেলে ইমরান। ঘটনার সময় তিনি মাঠে বেগুন তুলছিলেন। নিহত অন্যজন সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার হাবিবুল্লাহনগর ইউনিয়নের পুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা আফছার আলী মৃধার ছেলে আরিফ। সে দশম শ্রেণির ছাত্র। গরিব পিতার সন্তান করোনাকালে নিজের পড়াশোনার খরচ জোগাতে সাঁথিয়া এসেছিল শ্রমিকের কাজ করতে। ঘটনার সময় সে সাঁথিয়া উপজেলার করমজা ইউয়িনের আফড়া গ্রামের জাহেদ সরদারের জমিতে বাঙ্গি তুলছিল।

বড়াইগ্রাম (নাটোর) : উপজেলার জোয়াড়ি ইউনিয়নের কেচুয়াকোরা গ্রামে ছবের আলী নামে এক কৃষক বজ্রপাতে নিহত হন। গতকাল সকাল ৮টার দিকে হালকা বৃষ্টির মধ্যে তিনি বাড়ির অদূরে নিজ জমিতে ধান কাটছিলেন। এ সময় আকস্মিক বজ্রপাতে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। ছবের আলী ওই গ্রামের বাহারউদ্দিন আলীর ছেলে। জোয়াড়ি ইউপি চেয়ারম্যান চাঁন মাহমুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ঝিনাইদহ : কোটচাঁদপুর উপজেলায় বজ্রপাতে মালেকা খাতুন নামে এক নারীর মৃত্যু হয়। গতকাল বিকেলে উপজেলার কুশনা ইউনিয়নের কুড়ির মাঠে এ ঘটনা ঘটে। মালেকা কুশনা দুয়ারপাড়া গ্রামের নাজির উদ্দিনের স্ত্রী।

নওগাঁ : ধামইরহাট উপজেলার ইসবপুর ইউনিয়নে বজ্রপাতে ইজাবুল নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়। গতকাল দুপুর ২টার দিকে ইউনিয়নের বৈদ্যবাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ইজাবুল হঠাৎপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

বাগেরহাট : মোল্লাহাট উপজেলার কোদালিয়া ইউনিয়নে বজ্রপাতে আব্বাস আলী শেখ (৪০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়। গতকাল দুপুরে ওই ইউনিয়নের আড়–য়াডিহি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আব্বাস আলী ওই গ্রামের মৃত জাফর আলীর ছেলে।

advertisement