advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

নিউইয়র্ক সিটির নির্বাচনে ১৩ বাংলাদেশি

কামরুজ্জামান হেলাল,যুক্তরাষ্ট্র
২২ জুন ২০২১ ১৭:৩৯ | আপডেট: ২২ জুন ২০২১ ১৭:৩৯
advertisement

নিউইয়র্ক সিটির আসন্ন নির্বাচনে ১৩ জন বাংলাদেশি মার্কিনি লড়ছেন। আজ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিতব্য ডেমোক্র্যাটিক দলীয় প্রাইমারি নির্বাচন। এই নির্বাচনে সিটির ৫ বরোর মধ্যে তিন বরো থেকে ১৩ জন বাংলাদেশি-আমেরিকান বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে ৬টি কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট থেকে ১১ জন আর কাউন্টি জজ পদে একজন এবং ফিমেল ডিস্ট্রিক্ট লিডার পদে আরও একজন লড়ছেন বলে জানা গেছে।

ডেমোক্র্যাট রাজ্য নিউইয়র্কের আসন্ন প্রাইমারি নির্বাচনে মেয়র পদেও নির্বাচন হতে যাচ্ছে ‘র‌্যাঙ্কড চয়েজ ভোটিং’ পদ্ধতিতে। এতে একজন ভোটার তার পছদের ৫ জন প্রার্থীকে প্রথম পছন্দ থেকে শুরু করে পরপর ৫টি ভোট দিতে পারবেন। ফলে সব মিলিয়ে জমে উঠছে এবারের সিটি নির্বাচন।

নিউইয়র্ক সিটির বোর্ড অব ইলেকশন সূত্রে জানা গেছে, এ বছর ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রাইমারি নির্বাচনে মেয়র পদ ৯ জন প্রার্থীসহ মোট ৫২৯ জন প্রার্থী বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অগ্রিম ভোট (আর্লি ভোটিং), মেইল ভোট এবং ভোটের দিন ভোট এই তিন পদ্ধতিতে ভোট প্রদানের নিয়ম রয়েছে। গত ১২ জুন থেকে ২০ জুন পর্যন্ত অগ্রিম ভোট প্রদান চলে। মেইল ভোট চলবে জুন মাস জুড়ে। ভোটের দিন (ইলেকশন ডে) মঙ্গলবার কেন্দ্রে কেন্দ্রে বিরতিহীন ভোটগ্রহণ চলবে সকাল ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

নিউইয়র্ক সিটির ৫ বরোর ৫১টি ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিলের মধ্যে বাংলাদেশি প্রার্থী হিসেবে ব্রঙ্কস বরোর কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-১৮ থেকে মোহাম্মদ এন মজুমদার ও মির্জা মামুন রশীদ, কুইন্স বরোর কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-২৪ থেকে মৌমিতা আহমেদ, সাবুল উদ্দিন ও সাইফুর খান হারুন, কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-২৬ থেকে বদরুন খান মিতা ও সুলতান মারুফ, ব্রুকলিন বরোর কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-৩২ থেকে শেখ হেলাল, কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-৩৭ থেকে মিসবা আবদীন এবং কাউন্সিল ডিস্ট্রিক্ট-৩৯ থেকে শাহানা হানিফ ও মামনুন হক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অপরদিকে কুইন্স কান্টি জজ পদে অ্যাটর্নি সোমা সাঈদ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ডিস্ট্রিক্ট লিডার পদে শাহানা মাসুম অ্যাসেম্বলি ডিস্ট্রিক্ট-৬১ থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

উল্লেখিত প্রার্থীদের মধ্যে ইতোপূর্বে বিভিন্ন পদে হেলাল শেখ, মির্জা মামুন রশীদ, মৌমিতা আহমেদ, সাবুল উদ্দিন, বদরুন খান মিতার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। এদের মধ্যে বদরুন খান মিছা ছাড়া অন্য সকলেই সিটি কাউন্সিল মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন। মিতা ইউএস কংগ্রেসে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন। হেলাল শেখ কাউন্সিল মেম্বার পদ ছাড়াও সিটি অ্যাডভোকেট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে পরাজিত হন। আর অ্যাটর্নি সোমা সাঈদ গত নির্বাচনে সিটি কাউন্সিল মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার পর এবার কাউন্টি জজ পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অপরদিকে মোহাম্মদ এন মজুমদার, সাইফুর খান হারুন, মিসবা আবদীন, শাহানা হানিফ ও মামনুন হক সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নতুন।

আসন্ন নির্বাচন ঘিরে চলছে ব্যাপক প্রচারণা। দর্শনীয় স্থানে সাঁটানো হয়েছে রং বেরংয়ের পোস্টার, চলছে সমর্থন কামনা আর ভোট প্রার্থনার পাশাপাশি সভা-সমাবেশ।

উল্লেখ্য, নিউইয়র্ক সিটির চূড়ান্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে চলতি বছরের ২ নভেম্বর মঙ্গলবার।

advertisement