advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্রদের সংবেদনশীল ডেটাসমূহ টার্গেট করেছে চীন

অনলাইন ডেস্ক
২২ জুলাই ২০২১ ১৬:৩৩ | আপডেট: ২২ জুলাই ২০২১ ১৬:৩৭
advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর পক্ষ থেকে ইস্যু করা নতুন এক পরামর্শমূলক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে চীনের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত সাইবার কার্যক্রম যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদেশগুলোর সাইবার সম্পদেও বড় হুমকি হয়ে উঠেছে। সাইবার সিকিউরিটি অ্যাডভাইসরির (সিএসএ) পক্ষ থেকে সম্প্রতি ইস্যু করা এক যৌথ বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় থাকা সাইবার কর্মীরা সংবেদনশীল তথ্য, উদীয়মান প্রযুক্তি, মেধাসম্পদ এবং ব্যক্তিগতভাবে শনাক্তকরণ তথ্য (পিআইআই) চুরির জন্য রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামরিক, শিক্ষা এবং গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামোগুলোকে নিশানা করে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, নিউজিল্যান্ড, জাপান এবং ন্যাটোসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বন্ধু ও সহযোগীদের নিয়ে একটি বড় দল চীনের রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের বিতর্কিত সাইবার কর্মকাণ্ড নিয়ে সমালোচনা করেছে।

এর মধ্যে ন্যাটোর পক্ষ থেকে প্রথমবারের মতো চীনের সাইবার কার্যক্রম নিয়ে নিন্দা জানানো হয়। সাইবার কর্মীরা কীভাবে সেবাদাতা, সেমিকন্ডাক্টর কোম্পানি, ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিয়াল বেজ (ডিআইবি), বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে কীভাবে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয় তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ ঘোষণাটিতে বর্ণনা করা হয়েছে।

চায়নিজ স্টেট-স্পনসরড সাইবার অপারেশন শিরোনামের ঘোষণাটিতে বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রসহ তাদের মিত্রদের টার্গেট করার সময় চীনের  সাইবার প্রতিষ্ঠানগুলোর কৌশলগুলো পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। নতুন পরামর্শটি পূর্বের ন্যাশনাল সিকিউরিটি এজেন্সি (এনএসএ), সাইবারসিকিউরিটি অ্যান্ড ইনফ্রাস্টট্রাকচার সিকিউরিটি এজেন্সি (সিআইএসএ) এবং ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) প্রতিবেদনের ওপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে।

এই ঘোষণাটি প্রকাশের আগে যুক্তরাষ্ট্রের একজন উর্ধ্বতন প্রশাসনিক কর্মকর্তা বলেছেন সাইবারস্পেস নিয়ে গণপ্রজাতান্ত্রিক চীনের দায়িত্বজ্ঞানহীন ও অস্থিতিশীল আচরণ দীর্ঘদিনের চিন্তার বিষয়। তিনি আরও বলেন, ‘চীনের জাতীয় নিরাপত্তা মন্ত্রণালয় বিশ্বব্যাপী নিষিদ্ধ সাইবার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য হ্যাকারদের ব্যবহার করত। এক্ষেত্রে তাদের নিজস্ব স্বার্থ রয়েছে।’ সূত্র:এএনআই

advertisement