advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বধিরদের গ্রাম

আমাদের সময় ডেস্ক
২৪ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৪ জুলাই ২০২১ ১২:১১ এএম
advertisement

পৃথিবীর বিভিন্ন এলাকার ভাষা, সাম্প্রদায়িক বৈশিষ্ট্য আলাদা। কোনো কোনো অঞ্চলের মানুষের নানা ধরনের শারীরিক সমস্যার কথাও শোনা যায়। ইন্দোনেশিয়ায় এমন এক গ্রাম আছে, যেখানকার বেশিরভাগ মানুষই কানে শুনতে পান না। বালি দ্বীপ থেকে উত্তরে অবস্থিত এই গ্রামটির নাম বেংকালা।

জানা গেছে, এই গ্রামে প্রায় তিন হাজার মানুষ বসবাস করেন। এদের বেশিরভাগই দরিদ্র। কিন্তু তার চেয়েও বড় সমস্যা হচ্ছে, এখানকার শতকরা ৮০ ভাগ মানুষই কানে শোনেন না। নিজেদের মধ্যে ভাব বিনিময়ের জন্য তারা ব্যবহার করেন ‘কাতা কোলক’ নামে বিশেষ এক সাংকেতিক ভাষা। বিশ্ববাসীর কাছে এই গ্রামটি ‘বধিরদের গ্রাম’ নামে পরিচিত। গ্রামের বাসিন্দারা পশুপালন এবং কৃষিকাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। তবে বর্তমানে এখানে পর্যটনশিল্পের বিকাশ ঘটেছে।

এখানকার বেশিরভাগ শিশুরা জন্মগতভাবে কানে শোনার সমস্যা নিয়ে জন্মগ্রহণ করে। এখানকার প্রাচীন বাসিন্দাদের ধারণা ছিল, কোনো দেবতা রুষ্ট হওয়ার কারণে এ অঞ্চলে এমনটি ঘটছে। তবে এ সমস্যাটি নিয়ে বিজ্ঞানীরা বলছেন, এদের সবার মধ্যেই একটি জিনগত সমস্যা রয়েছে। এ সমস্যার কারণে এ অঞ্চলের অনেকের শোনার ক্ষমতা বা শ্রবণশক্তি খুবই কম।

advertisement