advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

করোনায় মৃত্যু-শনাক্ত বেড়েছে চট্টগ্রামে

চট্টগ্রাম ব্যুরো
২৪ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৪ জুলাই ২০২১ ১২:১১ এএম
advertisement

চট্টগ্রামে এক দিনের ব্যবধানে একসঙ্গে বেড়েছে করোনা শনাক্ত ও করোনায় মৃত্যু। চিকিৎসকরা বলছেন, ঈদে যারা বাড়ি গেছেন তারা শহরে ফিরছেন। নতুন করে সংক্রমণের গতি বুঝতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে।

গতকাল শুক্রবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে দেখা যায়, ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে ১ হাজার ২৬২ নমুনা পরীক্ষায় ৪৫১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ২৩৭ জন নগরের এবং ২১৪ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। এদিন চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তের হার ছিল ৩৫ দশমিক ৭৪ শতাংশ। একই সময়ে মারা গেছেন নগরের ছয়জন করোনা রোগী। চট্টগ্রামে এ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮৬৮ জন করোনা রোগীর। অন্যদিকে এখন পর্যন্ত চট্টগ্রামের মোট ৭৪ হাজার ২৬১ নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার ৪২৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। দুজন করোনা

রোগীর মৃত্যু হয়। আর শনাক্তের হার ছিল ২৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ। এক দিনের ব্যবধানে শনাক্তের হার বেড়েছে ৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ। করোনা শনাক্ত, করোনা রোগীর মৃত্যু ও করোনা শনাক্তের হার বেড়েছে।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের প্রধান আবদুর রব মাসুম বলেন, লকডাউন না থাকায় মানুষ ঈদে

বাড়ি গেছে। অনেকেই করোনা নিয়েই গ্রামে গেছে। ইতোমধ্যে হাসপাতালগুলোয় করোনা শয্যা সংকট দেখা দিয়েছে। সামনে আরও বেশি হাহাকার হবে।

সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, করোনা নিয়ে ঈদ-পরবর্তী যে সংকট হবে তার জন্য আমরা প্রস্তুত আছি। এখন পর্যন্ত স্বাস্থ্যসেবার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও অক্সিজেন পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। আশা করি আমরা কঠিন পরিস্থিতেও সামাল দিতে পারব।

তিনি বলেন, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ৭ জন, সাতকানিয়ার ১১, বাঁশখালীর ৬, চন্দনাইশের ৩০, পটিয়ার ৬, বোয়ালখালীর ১০, রাঙ্গুনিয়ার ৩, রাউজানের ১১, ফটিকছড়ির ৬৩, হাটহাজারীর ২৯, সীতাকু-ের ১০, মিরসরাইয়ের ১৪ ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ১৪ জন।

advertisement