advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দেশে ফিরছেন সাকিব-মাহমুদউল্লাহরা

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৮ জুলাই ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৭ জুলাই ২০২১ ১১:০৭ পিএম
advertisement

করোনা মহামারীর ধাক্কা সামলে এ বছরের জানুয়ারিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরে বাংলাদেশ। এর পর থেকেই ব্যস্ত সময় পার করছেন টাইগাররা। একের পর এক সিরিজ খেলছেন মুমিনুল-তামিম-মাহমুদউল্লাহরা। প্রতিটা সিরিজই অনুষ্ঠিত হচ্ছে জৈব সুরক্ষা বলয়ে। বায়ো বাবলে থাকা যে কতটা কষ্টের তা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। তবে করোনা পরিস্থিতিতে বায়ো বাবল ছাড়া সিরিজ আয়োজন করা সম্ভব না। তাই বাস্তবতা মেনে নিচ্ছেন খেলোয়াড়রা।

বাংলাদেশ দলের সামনে এবার অস্ট্রেলিয়া। জিম্বাবুয়ে সফরে প্রাপ্তি আর প্রাপ্তি। একমাত্র টেস্ট ম্যাচ জিতেছে। এর পর ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের হোয়াইটওয়াশ করেছে। সফরের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ শেষ হয়েছে ২৫ জুলাই। আগামীকাল সকাল ৯টায় ঢাকায় এসে পৌঁছবেন সাকিব-মাহমুদউল্লাহরা। এর পর অস্ট্রেলিয়া-বধের পরিকল্পনা আঁটবেন তারা!

টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপের প্রস্তুতির জন্য বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে অস্ট্রেলিয়া। তারা আগামীকাল ঢাকায় এসে পৌঁছবে। সফরের পাঁচটি ম্যাচ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৩, ৪, ৬, ৭ ও ৯ আগস্ট। দিবারাত্রির ম্যাচ শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়। স্মিথ, ওয়ার্নার, ম্যাক্সওয়েল, ফিঞ্চকে ছাড়াই বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়া। দ্বিতীয় সারির দলের বিপক্ষেই খেলবেন টাইগাররা। তবে খুব বেশি ‘খুশি’ হওয়ার কোনো কারণও নেই। বাংলাদেশকেও খেলতে হবে দলের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারকে ছাড়া।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজে নেই তামিম ইকবাল, লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম। ইনজুরিতে ভুগছেন মোস্তাফিজ, সাকিব ও সৌম্য সরকার। তবে মোস্তাফিজ, সাকিব ও সৌম্য খেলছেন এটা একপ্রকার নিশ্চিত। দেশের মাটিতে খেলা হওয়ায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ জিততে মরিয়া টাইগাররা। শক্তিশালী দল মাঠে নামাবে টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে একটানা খেলার কারণে শারীরিক ও মানসিকভাবে কিছুটা ক্লান্ত থাকবেন খেলোয়াড়রা। জিম্বাবুয়ে থেকে দেশে ফেরার তিন দিন পর অর্থাৎ ১ আগস্ট থেকে অনুশীলন শুরু করে দেবেন মাহমুদউল্লাহরা। ২ দিনের অনুশীলনের পর ৩ আগস্ট সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ মাঠে গড়াবে।

করোনা মহামারীর কারণে শেষ পর্যন্ত ভারতে টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপ হচ্ছে না। ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাত হয়েছে আয়োজক। টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপের মূল পর্বে মোট ১২টি দল অংশ নেবে। বাংলাদেশকে প্রাথমিক বা বাছাইপর্বে খেলতে হবে। টি-টোয়েন্টি বিশ^কাপের আগে অস্ট্রেলিয়া ছাড়াও নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের বিপক্ষেও দেশের মাটিতে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবেন টাইগাররা।

advertisement