advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ট্রানজিট হয়ে কুয়েতে ফিরছেন আটকে পড়া প্রবাসীরা

কুয়েত প্রতিনিধি
৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৮:২৫ পিএম | আপডেট: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৮:২৫ পিএম
advertisement

কুয়েতে করোনা ঝুঁকিপূর্ণ দেশের সঙ্গে সরাসরি আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ থাকয় সৌদি আরব, তুর্কি, বাহারাইন হয়ে কুয়েত প্রবশে করছেন ছুটিতে আটকে পড়া প্রবাসীরা। প্রবাসীরা কুয়েত সরকার অনুমোদিত ফাইজার, অক্সফোর্ড, মডার্না, জনসন অ্যান্ড জনসন টিকা নেওয়া সনদ বিস্তারিত তথ্য দিয়ে কুয়েতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দিষ্ট প্লাটফর্মে আবেদন করলে তথ্য সঠিক হলে অনুমোদন পাওয়া প্রবাসীরা প্রবেশের ৭২ আগে পিসিআর সনদ নিয়ে ফিরছেন নিজ কর্মস্থলে।

স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় টিকেটের মূল্য বেশি হওয়ায় যাদের আকামার মেয়াদ শেষে পর্যায় ব্যবসায় বাণিজ্য রয়েছে এমন প্রবাসীরাই ফিরছেন বেশি। এদিকে করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ায় ধাপে ধাপে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু হচ্ছে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে।

কোটা পদ্ধতিতে বিভিন্ন দেশ থেকে প্রতিদিন ১০ হাজার যাত্রী প্রবেশের অনুমোতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও চলছে গণ টিকাদান কর্যক্রম। স্বাভাবিক হতে চলেছে কুয়েতরে জীবন যাত্রা।

এক বছর আটকে থাকার পর তুর্কী ট্রানজিট হয়ে আসা কুয়েত প্রবাসী মোহাম্মদ সেলিম জানান, দেশে আটক পড়া প্রবাসীদের অবস্থা অনেক করুন। ট্রানজিট বা সরাসরি যেভাবে পারুন ফ্লাইটে সুযোগ থাকলে চলে আসুন। পিসিআর সনদ, ইমোনি আপসে সবুজ সংকেত থাকলে যাত্রাপথে কোনো ঝামেলা নেই।ট্রানজিট হয়ে ভিন্ন ফ্লাইটে আরও অনেক বাংলাদেশিরা আসছেন।

ট্রানজিট হয়ে আসা অন্য আরেকজন প্রবাসী সাঈদুল মোল্লা বলেন, ‘৭ মাস দেশে আটকে ছিলাম। সেপ্টেম্বরের ১০ তারিখে আমার আকামার মেয়াদ শেষ। আমার একই ফ্লাইটে আসছে যাদের কয়েকজনের আকামা মেয়াদ আজকে শেষ দিন। যেহেতু টিকেটের মূল্য অন্য সময়ের তুলনায় বেশি তাই একাধিক ট্রাভেল এজেন্সি যাছাই করে চলে আসাটা ভালো হবে।’

advertisement