advertisement
DARAZ
advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল খুলছে ৫ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৭:৪৮ পিএম | আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৮:১৭ পিএম
পুরোনো ছবি
advertisement

কমপক্ষে এক ডোজ টিকা নেওয়ার শর্তে শুধু অনার্স চতুর্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের জন্য আগামী ৫ অক্টোবর খুলছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আবাসিক হল। তবে তার আগেই ২৬ সেপ্টেম্বর খুলে দেওয়া হবে গ্রন্থাগার। আজ শনিবার বিকেল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে জরুরি সিন্ডিকেট সভায় এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

এর আগে গত বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট কমিটি শর্তসাপেক্ষে হল ও গ্রন্থাগার খুলে দেওয়ার সুপারিশ করে। শনিবার ওই সুপারিশকে অনুমোদন দিয়ে চূড়ান্ত করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক মাহমুদ আলম এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অনার্স চতুর্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের যে সকল শিক্ষার্থী অন্তত করোনার প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছে, তারা স্বাস্থ্যবিধি এবং SOP (Standard Operating Procedure) অনুসরণ করে টিকা গ্রহণের কার্ড/সনদ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈধ পরিচয়পত্র সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দেখিয়ে গ্রন্থাগার ব্যবহার ও নিজ নিজ হলে উঠতে পারবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীরা ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে সকাল ১০টা হতে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার, বিজ্ঞান গ্রন্থাগার ও বিভাগীয়/ইন্সটিটিউটের সেমিনার লাইব্রেরিসমূহ ব্যবহার করতে পারবে। সংশ্লিষ্ট আবাসিক শিক্ষার্থীরা ৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে নিজ নিজ হলে উঠতে পারবে। শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সেবা প্রদানকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীদেরও টিকা গ্রহণের সনদ/প্রমাণপত্র সঙ্গে রাখতে হবে।

অন্য শিক্ষার্থীদের সম্পর্কে বলা হয়, টিকা গ্রহণ সাপেক্ষে পর্যায়ক্রমে অনার্স প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের জন্য আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। আবাসিক হলগুলোতে আগের মতো ঠাসাঠাসি করে বসবাস করা এবং কথিত কোনো গণরুম রাখা যাবে না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুধুমাত্র নিয়মিত আবাসিক শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করবে।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রেণী কার্যক্রম সম্পর্কে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শতভাগ শিক্ষার্থী টিকা কার্যক্রমের আওতায় আসার পর সশরীরে শ্রেণি কার্যক্রমের তারিখ নির্ধারণ করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. মোহাম্মদ মোর্তজা মেডিকেল সেন্টারে টিকা প্রদান কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যে সব শিক্ষার্থী এখনও টিকা রেজিস্ট্রেশন করেনি, তাদেরকে জাতীয় পরিচয়পত্র/জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে আগামী ২৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রেজিস্ট্রেশনের আওতায় এসে টিকা গ্রহণের জন্য বলা হয়েছে।

advertisement