advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মেরিনার্সের তিন কর্মকর্তার জামিন

ক্রীড়া ডেস্ক
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১০:৪২ পিএম
advertisement

মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের ভেতরে ভাঙচুর এবং খেলোয়াড় নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে করা মামলায় মেরিনার ইয়াংস ক্লাবের তিন কর্মকর্তা ও এক সমর্থক জামিন পেয়েছেন। গতকাল সোমবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আশেক ইমাম এ আদেশ দেন। এ বিষয়ে আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) মো. আবদুল মোতালেব গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আজ (সোমবার) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মেরিনার ইয়াংস ক্লাবের তিন কর্মকর্তা ও এক সমর্থক আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে বিচারক জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন। জিআরও বলেন, জামিনপ্রাপ্তরা হলেন হাসান উল্লাহ খান রানা, বদরুল ইসলাম দিপু ও নজরুল ইসলাম মৃধা এবং সমর্থক শাহাদাত হোসেন জুবায়ের। গতাল সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমামের আদালতে আসামিরা আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করলে শুনানি শেষে আদালত প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে মুচলেকার মাধ্যমে জামিন মঞ্জুর করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মতিঝিল থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. আবদুল মোতালেবও। জামিন নেওয়ার পর মেরিনার্সের সাধারণ সম্পাদক হাসান উল্লাহ খান রানা বলেছেন, ‘আমরা আগেই বলেছি এটা হয়রানিমূলক মামলা। আমরা আইনের মাধ্যমেই এর মোকাবিলা করব। দুপুরে জামিন আবেদন করলে আমাদের জামিন মঞ্জুর করা হয়।’

চারজনের নাম উল্লেখ ছাড়াও অজ্ঞাত ৬০-৭০ জনকে আসামি করে রবিবার মতিঝিল থানায় মামলা করেছিল মোহামেডান। তাদের অভিযোগ ছিল, শুক্রবার রাতে প্রায় ৬০-৭০ জনের দল নিয়ে তরুণ খেলোয়াড় সারোয়ার মুর্শেদ শাওনকে ক্লাব থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় মেরিনার্সের কর্মকর্তারা। এ সময় মোহামেডান ক্লাবের ডাইনিং হলের আসবাবপত্রও ভাঙচুর করে তারা। হকির দলবদল নিয়েই মূলত উত্তেজনা। মোহামেডান-মেরিনার্স দুই দলই শাওনকে নিজেদের খেলোয়াড় হিসেবে দাবি করেছিল। রবিবার বিশেষ ব্যবস্থায় আসন্ন মৌসুমে মোহামেডানের পক্ষে খেলার জন্য নিবন্ধিত হয়েছেন শাওন।

advertisement
advertisement