advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

প্রিন্স মুসার আইন উপদেষ্টা পরিচয়দানকারী সেই ভুয়া অতিরিক্ত সচিব কারাগারে

আদালত প্রতিবেদক
১৭ অক্টোবর ২০২১ ০৬:৫৬ পিএম | আপডেট: ১৭ অক্টোবর ২০২১ ০৮:২১ পিএম
মুসা বিন শমসেরের (প্রিন্স মুসা) আইন উপদেষ্টা ও জনপ্রসাশন মন্ত্রণালয়ের ভুয়া অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আব্দুল কাদের। পুরোনো ছবি
advertisement

আলোচিত ধনকুবের মুসা বিন শমসেরের (প্রিন্স মুসা) আইন উপদেষ্টা ও জনপ্রসাশন মন্ত্রণালয়ের ভুয়া অতিরিক্ত সচিব পরিচয়দানকারী আব্দুল কাদেরকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

আজ রোববার রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার প্রতারণার একটি মামলায় ৩ দিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের (গুলশান জোন) পরিদর্শক (নিরস্ত্র) নূরে আলম সিদ্দিকী তাকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ শুনানি শেষে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তারও আগে গত ৮ অক্টোবর আব্দুল কাদেরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর পল্লবী থানার অস্ত্র মামলায় তাকে চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

মামলায় বলা হয়, আব্দুল কাদের একজন আন্তর্জাতিক সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য। তিনি নিজেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পরিচয় প্রদান করেন এবং তার ব্যবহৃত গাড়িতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের স্টিকার ব্যবহার করে থাকেন। মানুষকে লোন পাস করে দেওয়ার কথা বলে এবং ফ্ল্যাট বিক্রির কথা বলে কোটি কোটি টাকা প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নেন। তার অফিসে লোকজন আসলে লাখ টাকার বিনিময়ে দেখা করতে হয়। তিনি ওয়াকিটকি ব্যবহার করে পেছনে বডিগার্ড নিয়ে চলেন এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে ছবি তুলে তা প্রদর্শন করে নিজেকে সিআইপি হিসেবে দাবি করেন।

গত ৭ অক্টোবর ঠিকাদার কনস্ট্রাকশনের মালামাল সরবরাহকারী শেখ আলী আকবর প্রতারণা করে ২৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কাদেরসহ তিনজনের বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের করেন। মামলার অপর আসামিরা হলেন- আব্দুল কাদেরের স্ত্রী সততা প্রোপার্টিস লি. এর চেয়ারম্যান ছোয়া এবং ম্যানেজার শহিদুল ইসলাম। এই মামলা ছাড়াও গুলশান থানায় প্রতারণার আরও ২টি মামলা রয়েছে। যে মামলাগুলোয় কাদেরকে পর্যায়ক্রমে রিমান্ডে নেওয়া হবে বলে জানা গেছে।

advertisement
advertisement