advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দেশজুড়ে সম্প্রীতির সমাবেশ
সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রুখে দেওয়ার প্রত্যয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
২০ অক্টোবর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২০ অক্টোবর ২০২১ ০২:০১ এএম
advertisement

সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রুখে দেওয়ার প্রত্যয়ে ঢাকাসহ সারাদেশে ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ করেছে আওয়ামী লীগ এবং এর বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠন। গতকাল মঙ্গলবারের এই কর্মসূচির মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন নেতাকর্মীরা। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সম্প্রীতি সমাবেশ শুরু হয় বেলা ১১টায়। সমাবেশের পর শোভাযাত্রা উদ্বোধন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শোভাযাত্রায় হাজার-হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। শোভাযাত্রার সামনের অংশ যখন শহীদ মিনারে পৌঁছায়, তখন শেষের অংশ গুলিস্তানেই ছিল। এ সময় ট্রাকের ওপর অস্থায়ী মঞ্চে দাঁড়িয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধভাবে আমরা এই অপশক্তি প্রতিরোধ করব। হিন্দু ভাইদের বলব, আপনাদের ভয় নাই, শেখ হাসিনা আপনাদের সাথে আছে, আওয়ামী লীগ আপনাদের সাথে আছে।’ তিনি বলেন, ‘আজ মন্দিরে হামলা, প্রতিমা ভাঙচুর, অগ্নি সংযোগ-এগুলো ২০০১ সালের বিএনপি সরকারের চালানো নির্যাতনের পুনরাবৃত্তি। তারা আবার নতুন করে সম্প্রাদায়িক হামলা-সন্ত্রাস শুরু করেছে। নির্বাচন সামনে রেখে হঠাৎ হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা শুরু হয়েছে। যতদিন না এই সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিষদাঁত আমরা ভেঙে দিতে পারব, ততদিন আওয়ামী লীগ রাজপথে থাকবে।’ তিনি বলেন, ‘ভারতে মুসলমান আছে, তাদের

জানমালের কথাও আমাদের ভাবতে হবে। হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের যে উসকানি দেওয়া হচ্ছে, তাতে ভারতের মুসলমানদের জীবনকেও বিপন্ন করে ফেলছে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মোকাবিলা করে তাদের সমুচিত জবাব দিতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা সারাদেশে প্রস্তুত আছে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আন্দোলনে ও নির্বাচনে ব্যর্থ হওয়া বিএনপি আজ সাম্প্রদায়িক শক্তিকে উসকে দিয়ে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াচ্ছে।’

সমাবেশে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে রুখে দেব।’

সভাপতিম-লীর সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘যারা ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করছেন, সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে আগুন দিচ্ছেন, তাদের অবশ্যই খুঁজে বের করা হবে।’

আওয়ামী লীগ সভাপতিম-লীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ‘এই হামলায় যারাই জড়িত, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। এই অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না।’

আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর আরেক সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, ‘তারা (বিএনপি-জায়ামাত) জানে যে ভোটের মাধ্যমে এই সরকারকে পরাজিত করতে পারবে না। এজন্য এই ধর্মীয় উš§াদনা সৃষ্টি করে ষড়যন্ত্রের জাল বুনছে।’

দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতা দেখার জন্য ৩০ লাখ শহীদ আত্মাহুতি দেননি। যে সমস্ত মৌলবাদী, ধর্মান্ধ এখনো ধর্মের দোহাই দিয়ে একাত্তরের মতো সমাজে সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়াচ্ছে, যারা এখনো ঘর-বাড়ি জ্বালাচ্ছে, তাদের আমরা একাত্তরের মতোই প্রতিহত করে অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ গড়ব।’

দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘সম্প্রীতি নষ্ট করার লক্ষ্যে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘর উপাসনালয়ে হামলা চালিয়েছে। এর পেছনে গভীর ষড়যন্ত্র আছে।’

গাজীপুর প্রতিনিধি জানান, গাজীপুরে হাজার হাজার নারী-পুরুষের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল বিকালে শহরের রাজবাড়ি এলাকায় আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের নেতৃত্বে শোভাযাত্রা বের হয়।

চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, গতকাল দুপুরে নগরীর কাজীর দেউড়ির ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন হল প্রাঙ্গণ থেকে শোভাযাত্রা শুরু করে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ। নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীনের নেতৃত্বে এ শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্যরা।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানান, জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। বিকালে শহরের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বিভিন্ন এলাকা থেকে খ- খ- মিছিল নিয়ে এসে সমবেত হন নেতাকর্মীরা। শোভাযাত্রার শুরুতে সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা হয়।

জাবি প্রতিনিধি জানান, সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা। গতকাল দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে শোভাযাত্রা শুরু হয়।

নাটোর প্রতিনিধি জানান, জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নাটোর শহরে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল দুপুরে শহরের কান্দিভিটা এলাকায় দলীয় কার্যালয় থেকে শান্তির শোভাযাত্রা বের করা হয়। এটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে নাটোর প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

চবি প্রতিনিধি জানান, দেশব্যাপী সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) বঙ্গবন্ধু চত্বরে শিক্ষক সমিতি মানববন্ধন করে। এতে চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীন আখতার, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক সিরাজ উদ দৌলাহ, চবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. এমদাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মনজুরুল আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, জেলায় সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করে নোয়াখালী পৌরসভা। গতকাল সকালে নোয়াখালী জেলা জামে মসজিদের ইমাম দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে পৌর ভবনের সামনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ও পৌরসভার মেয়র শহীদ উল্যাহ খান সোহেল।

সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি জানান, সোনাইমুড়ীতে ‘সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ সেøাগানে শান্তি ও সম্প্রীতির শোভাযাত্রা হয়েছে। কলেজ গেইটের সামনে থেকে এই শোভাযাত্রা শুরু হয়।

নিজস্ব প্রতিবেদক (রাজশাহী) জানান, রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার জিরোপয়েন্টে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন (আরইউজে) মানববন্ধন ও সমাবেশ আয়োজন করে। আরইউজে সভাপতি রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হকের সঞ্চালনায় মানববন্ধনোত্তর সমাবেশে বক্তব্য দেন আরইউজের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান, আরইউজে সদস্য রাশেদ রিপন, আজিজুল ইসলাম, বদরুল হাসান লিটন প্রমুখ।

সদরপুর (ফরিদপুর) প্রতিনিধি জানান, উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিভিন্ন মসজিদের ইমাম ও উলামাদের নিয়ে মতবিনিময় সভা হয়। গতকাল দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারেক মাহমুদের সভাপতিত্বে দরবার হলে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী শফিকুর রহমান।

নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) প্রতিনিধি জানান, সেখানে ধর্মীয় সম্প্রীতি ও সচেতনতামূলক প্রচারের আওতায় আন্তঃধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল সকাল সাড়ে ১১টায় নাইক্ষ্যংছড়িস্থ জেলা পরিষদের ডাক বাংলোর সম্মেলনকক্ষে গ্রাম উন্নয়ন সংগঠন (গ্রাউস) ও অনন্য কল্যাণ সংগঠনের (একেএস) যৌথ উদ্যোগে এ সংলাপ হয়।

গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানান, জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গতকাল সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। এতে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন।

নিজস্ব প্রতিবেদক (সাভার) জানান, সেখানে শান্তি মিছিল করে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগ। দুপুরে সাভার উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে মিছিল বের করা হয়।

কুবি প্রতিনিধি জানান, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা গতকাল ক্যাম্পাসে মানববন্ধন করেন। এতে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকরাও অংশগ্রহণ করেন।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, দেশব্যাপী সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা করেছে জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অঙ্গ-সংগঠন। গতকাল সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত পৃথকভাবে সুনামগঞ্জ পৌর শহরে এই কর্মসূচি পালিত হয়।

ঢাবি প্রতিবেদক জানান, সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শিক্ষক সমিতি। গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে এই কর্মসূচি পালন করেন তারা। ‘সাম্প্রদায়িকতা রুখে দাঁড়াও, সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়ো’ শীর্ষক ব্যানারে এই মানববন্ধনে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘মাঝেমধ্যে বাংলাদেশের মতো অসাম্প্রদায়িক, সম্প্রীতির দেশে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠে বিভিন্ন ঘটনা সৃষ্টি করে, যা আমাদের জাতির জন্য খুবই দুর্ভাগ্য ও দুঃখজনক।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ছামাদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মিহির লাল সাহা প্রমুখ।

এদিকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে শৈল্পিক প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগ।

আমাদের সময়ের সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক জানান, মন্দির-ম-পে হামলা ঘরবাড়ি ভাঙচুর এবং অপ্রীতিকর ঘটনার প্রতিবাদে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট দেশব্যাপী সম্প্রীতি রক্ষা দিবস পালন করেছে। ‘হিংসা-বিদ্বেষ সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও’ সেøাগানে গতকাল সারাদেশে একযোগে অনুষ্ঠিত হয় এ আয়োজন। জোটের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নোয়াখালীর চৌমুহনীতে দিবসটির মূল অনুষ্ঠানের পাশাপাশি রাজধানীর বাহাদুর শাহ পার্ক, মিরপুর, দনিয়া ও উত্তরাতে একযোগে অনুষ্ঠিত হয় এ কর্মসূচি।

আদি ঢাকা সাংস্কৃতিক জোট : আদি ঢাকা সাংস্কৃতিক জোট বিকাল সাড়ে ৩টায় পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ্ পার্কে (ভিক্টরিয়া পার্ক) অনুষ্ঠিত হয় এই আয়োজন। সংগঠনের সভাপতি মানস বোস বাবুরামের সভাপতিত্বে এতে বক্তৃতা করেন সাধারণ সম্পাদক হানিফ খান, সহ-সভাপতি ঢালী মো. দেলোয়ার, রেজাউর রহমান সিনহা, নিয়াজ আহমেদ, আহসান সিদ্দিকী, বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক চন্দন ভৌমিক প্রমুখ।

মিরপুর সাংস্কৃতিক ঐক্য ফোরাম : মিরপুরে দিবসটি পালন করে মিরপুর সাংস্কৃতিক ঐক্য ফোরাম। বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে সিদ্দিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান ভুলু, মাসকুর-এ-সাত্তার কল্লোল, মঞ্জুর আলম সিদ্দিকী, কাজী মিজানুর রহমান, সগীর মোস্তফা প্রমুখ।

দনিয়া সাংস্কৃতিক জোট : সংগঠনটির সভাপতিম-লীর সদস্য শাহনেওয়াজের সভাপতিত্বে বিকালে দনিয়া সাংস্কৃতিক জোটের সম্প্রীতি রক্ষা দিবসে বক্তৃতা করেন সাধারণ সম্পাদক এইচআর অনিকসহ নেতৃবৃন্দ।

উত্তরা সাংস্কৃতিক জোট : বিকাল সাড়ে ৩টায় উত্তরাতে উত্তরা সাংস্কৃতিক জোটের অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন সোলেমান কবির, খাদেমুল ইসলাম নয়ন, রবিউল মাহমুদ ইয়াং, ননী গোপাল প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন পথনাটক পরিষদের সভাপতি মিজানুর রহমান।

শিল্পকলায় ‘দমের মাদার’: নাট্যম রেপার্টরি থিয়েটার শিল্পকলা একাডেমিতে মঞ্চায়ন করেছে দলটির নিয়মিত প্রযোজনার নাটক ‘দমের মাদার’। গতকাল জাতীয় নাট্যশালার পরীক্ষণ থিয়েটার হলে মঞ্চায়ন হয় নাটকটি। সাধনা আহমেদের রচনায় নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন আইরিন পারভীন লোপা।

বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন- শিশির রহমান, শুভাশিষ দত্ত তন্ময়, পারভীন আখতার পারু, শামীমা আক্তার মুক্তা, ফজলে রাব্বি সুকর্ণ, দেলোয়ার হোসেন উজ্জল, জান্নাতুল ফেরদৌস হ্যাপি, তাহমিনা খানম, মনোহর দাস, অমিতাভ রাজীব প্রমুখ।

advertisement
advertisement