advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

বিয়ে করেননি, প্রেমিকাও নেই এমন পুরুষদের যৌনক্ষমতা কমেছে করোনায়

অনলাইন ডেস্ক
১৯ নভেম্বর ২০২১ ০৭:৫৫ পিএম | আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০২১ ০৮:২৮ পিএম
advertisement

করোনা আসার পর পৃথিবীতে হাজারো পরিবর্তন এসছে। এর প্রভাব পড়েছে যৌনসম্পর্কের ওপরেও। দীর্ঘ দিন ধরেই চিকিৎসকরা বলছেন, করোনা পুরুষের গড়পরতা যৌনক্ষমতা কমিয়ে দিয়েছে। কিন্তু সেটি পুরোপুরি চিকিৎসাবিজ্ঞানের আওতাধীন একটি বিষয়। অতিমারির কারণে বদলে যাওয়া সামাজিক কাঠামোও প্রভাব ফেলছে যৌনসম্পর্কের ওপরও। এবার একথা জানালেন সমাজবিজ্ঞানীরা।

যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞানের গবেষক জাস্টিন গার্সিয়া এবং কলোরাডো ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞানের গবেষক হেলেন ফিশার যৌথভাবে একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন। সেখানে দাবি করা হয়েছে, পরিবর্তিত সামাজিক পরিস্থিতিতে যৌনসম্পর্কের প্রতি পুরুষের আগ্রহ বিপুলভাবে কমেছে। বিশেষ করে সেই সব পুরুষ, যারা বৈবাহিক বা প্রেমের কোনও সম্পর্কে নেই, তাদের অনেকেই যৌনসম্পর্কের প্রতি উদাসীন হয়ে গেছেন।

তাদের সমীক্ষায় দাবি করা হয়েছে, সারা পৃথিবীর ৮১ শতাংশ পুরুষই এখন মনে করেন, মহামারি পরবর্তী সময়ে যৌনসম্পর্কের গুরুত্ব বা প্রয়োজন আর আগের মতো নেই।যৌনসম্পর্কের প্রতি পুরুষের আগ্রহ কমে যাওয়ার পেছনে সমাজবিজ্ঞানীরা যেসব বিষয় খুঁজে পেয়েছেন-দীর্ঘ সময়ের জন্য স্বাভাবিক কাজকর্ম মেলামেশা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তার প্রভাব বেশি মাত্রায় পড়েছে কোনও সম্পর্কে না থাকা পুরুষের মনে।

সমাজবিজ্ঞানীদের দাবি, বিশেষ করে পুরুষের ক্ষেত্রে যে বিষয়টি বেশি করে দেখা যায়, সেটি হল- যৌনসম্পর্কের সুযোগ যত বাড়ে, যৌনতার প্রতি আগ্রহও তত বাড়ে। সম্পর্কের সুযোগ কমলে, আগ্রহও সমানুপাতে কমতে থাকে।মাহমারির সময়ে মেলামেশার পরিমাণ কমে গেছে। যাদের কোনও স্থায়ী সঙ্গী বা সঙ্গিনী নেই, তারা অচেনা মানুষের থেকে দূরে চলে গেছেন। ফলে নতুন করে যৌনসম্পর্কের সুযোগটাই হারিয়ে গেছে। সুযোগ কমে যাওয়ায় একা পুরুষদের যৌনসম্পর্কের প্রতি আগ্রহ কমেছে।

এর পাশাপাশি পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আরও দুটি বিষয়ে জাস্টিন এবং হেলেন গুরুত্ব দিয়েছেন। সেগুলো হল-তাদের মতে, অর্থনৈতিক বিষয় নিয়ে চিন্তা, রোজগার নিয়ে অনিশ্চয়তা পুরুষদের মধ্যে বেড়েছে। যৌনতার প্রতি আগ্রহ কমে যাওয়ার বড় কারণ এটিও।

মহামারির আগে কোনও সম্পর্কে না থাকা বহু পুরুষ শুধুমাত্র যৌনসম্পর্কের প্রয়োজনেই অন্যের সঙ্গে মেলামেশার প্রতি আগ্রহ দেখাতেন, দ্বারস্থ হতেন বিভিন্ন ডেটিং অ্যাপের। কিন্তু এখন তারা এই ধরনের মেলামেশার প্রতি আগ্রহ হারাচ্ছেন। এর পরিবর্তে তারা এমন মানুষের সঙ্গে দেখা করতে চাইছেন, যেখানে যৌনসম্পর্কের চেয়েও বেশি মাত্রায় প্রাধান্য পাবে সম্পর্কের দীর্ঘ বাঁধন। ফলে তারা এখন এমন মানুষের সন্ধানে, যাদের সঙ্গে আগামী বহুবছর কাটাতে পারবেন।

advertisement
advertisement