advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত রাজা

চট্টগ্রাম থেকে ওমর ফারুক
২৪ নভেম্বর ২০২১ ০৩:৩৭ পিএম | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২০২১ ০৪:১০ পিএম
রেজাউর রহমান রাজা- পুরোনো ছবি
advertisement

সিলেটের ছেলে রেজাউর রহমান রাজা। বড় ভাইদের কল্যাণে টেপ টেনিস থেকে ক্রিকেট বলে খেলতে আসা। এরপর থেকে নিজেকে প্রমাণ করে যাচ্ছেন তিনি। নিজ বিভাগের হয়ে দারুণ পারফরম্যান্সের পর এইচপি দলের হয়েও নজর কেড়েছেন এই পেসার। তার সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের ওপর নির্ভর করে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের দলে ডাকা হয়েছে তাকে। জাতীয় দলে সুযোগ এলে চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন তিনি।

চট্টগ্রাম টেস্টে খেলতে দলের সঙ্গে প্রথম দিনের অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন তিনি। তার আগে এক ভিডিও বার্তায় ক্রিকেটে আসার শুরুটা নিয়ে এই পেসার বলেন, ‘আসলে টেপ টেনিস খেলা থেকে অনুপ্রাণিত হওয়া। এলাকায় টেপ টেনিস খেলার পর একটা ক্রিকেট বলের টুর্নামেন্ট হয়েছিল। আমি সেখানে খেলতে যাই। তখন বড় ভাইরা বোলিং দেখে বলছিলেন, তোর বোলিং ভালো হচ্ছে, তুই চাইলে স্টেডিয়ামে গিয়ে ক্রিকেট প্র্যাকটিস করতে পারিস।’

প্রথমবার অনুশীলনে গিয়ে নিজের মাঝে লুকিয়ে থাকা ‍সুপ্ত প্রতিভা বুঝতে পারেন রাজা। সেখান থেকে নতুন চ্যালেঞ্জ নেওয়া শুরু। তিনি বলেন, ‘আসলে চ্যালেঞ্জ নেওয়া পছন্দ করি। আমাদের বড় ভাইদের কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হওয়া। আমাদের সিলেটে যেমন রাহী (আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী) ভাই, এবাদত ভাই, খালেদ (খালেদ আহমেদ) ভাইদের কাছ থেকে মোটিভেশন পাওয়া। এ থেকেই আসলে পেস বোলার হওয়ার একটা উৎসাহ জেগেছে।’

‘টেস্ট খেলা আমি উপভোগ করি। আলহামদুলিল্লাহ্‌ ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথম শ্রেণিতে ভালো করেছি। চারদিনের খেলায় ডে বাই ডে কয়েকটা স্পেলে বোলিং করতে পারি। আমার স্ট্রেন্থটা ধরে রাখতে পারি, এটাই আমার শক্তি। আমার নিজের যেটা মনে হয় যে, এক জায়গায় টানা বল করতে পারি। বলে কিছু মুভমেন্ট করাইতে পারি। এক রিদমে টানা বল করতে পারি। দিনের শুরুতে যেই পেসে বোলিং করি, দিনের শেষে আলহামদুলিল্লাহ তার চেয়ে একটু বেশি পেসে বল করতে পারি’, যোগ করেন তিনি।

 

 

 

 

advertisement
advertisement