advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

পেশাদার ক্রিকেটারকে ধানক্ষেতেও ভালো খেলতে হবে : মুমিনুল

ক্রীড়া প্রতিবেদক
৩ ডিসেম্বর ২০২১ ০৩:৪৪ পিএম | আপডেট: ৩ ডিসেম্বর ২০২১ ০৩:৪৫ পিএম
মুমিনুল হক। পুরোনো ছবি
advertisement

টেস্ট ক্রিকেটে দীর্ঘ ২১ বছর পার করে আসলেও এখনো ঠিকঠাকভাবে এই ফরম্যাটে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি বাংলাদেশ। ফ্ল্যাট উইকেট কিংবা স্পিন উইকেট, দেশে কিংবা দেশের বাইরে সব জায়গায়ই এই ফরম্যাটে বিবর্ণ টাইগাররা। সম্প্রতি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের মতো আসরেও টাইগারদের এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর এবার ক্রিকেটারদের পেশাদারিত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

যদিও এখানে পেশাদারিত্বের কোনো ঘাটতি দেখছেন না টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক। তার মতে, পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে কোনো অজুহাতই কাম্য নয়। ধানক্ষেতে খেলতে দেওয়া হলে সেখানেও খেলতে হবে ক্রিকেটারদের। শুক্রবার ঢাকা টেস্টের আগেরদিন সংবাদ সম্মেলনে এসে তিনি এ কথা বলেন।

মুমিনুল বলেন, ‘পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে উইকেট কিংবা এগুলো নিয়ে অজুহাত দেওয়া কাম্য নয়। এটাতে আমি নিজেও একমত নই। যদি ধানক্ষেতেও খেলতে দেওয়া হয়, পেশাদার খেলোয়াড় হিসেবে সেখানেও আপনাকে ভালো খেলতে হবে। আমার মনে হয়, এসব নিয়ে অজুহাত না দিয়ে জেতার জন্য আরেকটু পেশাদারিত্ব দেখালেই ভালো হয়।’

শেষ ১০ টেস্টে বাংলাদেশের জয় মাত্র ২ টি, ড্র করেছে মাত্র একটিতে। এই ১০ ম্যাচ বাংলাদেশ খেলেছে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কার মতো উপমহাদেশের কন্ডিশনে। আরেকটু পেছনে ফিরলে যোগ হবে নিউজিল্যান্ড সফরও। সেক্ষেত্রে সর্বশেষ ১৩ ম্যাচেও সাফল্য ঐ ২ জয় এবং ১ ড্র। হারতে হয়েছে ঘরে মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে। ধবল ধোলাই হতে হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিছুটা খর্ব শক্তির দলের বিপক্ষেও।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সর্বশেষ আসরে বাংলাদেশ পয়েন্ট টেবিলের ছিল তলানিতে। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে একমাত্র দল হিসেবে পায়নি কোনো জয়। এই সময়ে পাওয়া দুইটি জয়ই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, যদিও তা অন্তর্ভূক্ত নয় টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের। মোটা দাগে সাফল্য কেবল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পাল্লেকেলে টেস্ট ড্র।

অথচ বাংলাদেশের মতোই দল নিয়ে টেস্টে আধিপত্য ধরে রেখেছে এশিয়ার অন্যদেশগুলো। আফগানিস্তান এখনো খেলার সুযোগ না পেলেও দুর্দান্ত সময় পার করছে তারা। চলতি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ বাংলাদেশ শুরু করেছে পাকিস্তানের বিপক্ষে ঘরের মাঠে ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজ দিয়ে। চট্টগ্রামে প্রথম ম্যাচে হারতে হয়েছে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

দলের ক্রিকেটারদের পেশাদারিত্বে ঘাটতি নেই জানিয়ে টাইগার কাপ্তান বলেন, ‘পেশাদারিত্বের বিষয়টা তো কেবল উইকেট নয়, অন্য সবকিছু মিলেই কিন্তু পেশাদারিত্ব। নিয়মানুবর্তিতার বিষয় আছে, ভালোমতো অনুশীলন করা, নিয়মমাফিক কাজ করা। প্রতিপক্ষের শক্তি এবং দুর্বলতার জায়গা বুঝে অনুশীলন করা, এগুলো সবই কিন্তু পেশাদারিত্বের ভেতরেই থাকে। তাই আমার মনে হয়, আপনি যেমন বলছেন, ওরকম কিছুই নয়। সবাই পেশাদারিত্ব দেখাচ্ছে, কেউ হয়তো সফল হচ্ছে, কেউ হচ্ছে না।’

advertisement
advertisement