advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

দুলাভাইয়ের ঘরে শ্যালিকার লাশ

ফরিদপুর প্রতিনিধি
৪ ডিসেম্বর ২০২১ ১২:০০ এএম | আপডেট: ৪ ডিসেম্বর ২০২১ ০৩:০৫ এএম
advertisement

গত ৩০ নভেম্বর দুলাভাই আলিম বিশ্বাসের বাড়িতে বেড়াতে আসে লামিয়া ঐশী (১৫) নামে এক কিশোরী। তার বোন বৃষ্টি সুলতানা চলমান এইচএসসি পরীক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার ছোটবোনকে বাড়িতে একা রেখে উপজেলা সদর কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে যান বৃষ্টি। স্বামী আলিম বিশ্বাস তাকে কেন্দ্রে পৌঁছে দিয়ে কাজে চলে যান। সন্ধ্যায় তারা বাড়িতে ফিরে দেখেন ঘরের ভেতর থেকে দরজা-জানালা বন্ধ। অনেক ডাকাডাকি করেও সাড়া মেলেনি। পরে ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে গিয়ে ঐশীকে ঝুলতে দেখেন তারা। এরপর প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় লাশ

নামিয়ে খবর দেওয়া হয় থানায়। পরে লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয় পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফরিদপুরের মধুখালীতে মথুরাপুর আশ্রয়ণ প্রকল্পের পাশে আলিম বিশ্বাসের ঘর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

লামিয়া একই উপজেলার বাগাট ইউনিয়নের বাগাট গ্রামের ঠাকুরপাড়া এলাকার আরিফ হোসেনের মেয়ে। আলিম বিশ্বাস মধুখালী বাজারের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী।

মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, এটি আত্মহত্যা বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে এখনো মূল ঘটনা জানা যায়নি। লাশটি শুক্রবার সকালে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

বৃষ্টি সুলতানা বলেন, জানা মতে আমার বোনের সঙ্গে কারও রাগারাগি বা ঝগড়াঝাটি কিছুই হয়নি। আমি পরীক্ষা দিতে যাওয়ার আগে তাকে ভালোভাবে রেখে যাই। বাড়িতে এসে ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ দেখে ডাকাডাকি করি। পরে ঝুলন্ত লাশ দেখি।