advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

দক্ষিণাঞ্চল-মধ্যাঞ্চল ফাইনাল আজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৫ জানুয়ারি ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২২ ১১:১৪ পিএম
advertisement

ইনডিপেনডেন্স কাপের ফাইনাল আজ। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে মুখোমুখি হবে দক্ষিণাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চল। সিলেটে ম্যাচটি শুরু হবে সকাল ৯টায়। শিরোপা জয়ের স্বাদ পাবে কোন দল- মোসাদ্দেকের মধ্যাঞ্চল নাকি জাকির হাসানের দক্ষিণাঞ্চল?

বিসিএলের লংগার ভার্সনের ফাইনালে দক্ষিণকে হারিয়েই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মধ্যাঞ্চল। এবার বিসিএলের ৫০ ওভারের ম্যাচের (ইনডিপেনডেন্স কাপ) শিরোপা নির্ধারণী মঞ্চেও দেখা হচ্ছে তাদের। দক্ষিণের ম্যানেজার জামাল বাবু জানিয়েছেন, ফাইনালে মধ্যাঞ্চলকে হারিয়ে তারা ‘প্রতিশোধ’ নিতে চান। গতকাল তিনি বলেন, ‘আমরা চার দিনের ম্যাচে তাদের কাছে হেরেছিলাম। এবার প্রস্তুতি নিয়েই নেমেছি। শেষ ম্যাচে তাদের হারিয়েছি। আমাদের মোস্তাফিজের মতো বোলার আছে। আশা করি চ্যাম্পিয়ন হব।’ গত বৃহস্পতিবার মধ্যাঞ্চলকে ৫ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে নাম লেখায় দক্ষিণাঞ্চল। মধ্যাঞ্চল অবশ্য আগেই ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছিল। নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে মোসাদ্দেকের দল জয় পায় পূর্বাঞ্চল ও উত্তরাঞ্চলের বিপক্ষে। পয়েন্ট সমান হলেও নেট রানরেটে এগিয়ে থাকায় টেবিলের শীর্ষ দল হিসেবে শিরোপা নির্ধারণী মঞ্চে নাম লেখায় মধ্যাঞ্চল। এবার শিরোপা জিতে শেষটা রাঙিয়ে দিতে চান মোসাদ্দেক-সৌম্যরা।

ইনডিপেনডেন্স কাপ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের প্রস্তুতি শুরু করেন সাকিব। তিনি মধ্যাঞ্চলের হয়ে ২ ম্যাচ খেলেছেন। ব্যাট হাতে ৬৮ রান ও বল হাতে ৩ উইকেট শিকার করেছেন এই অলরাউন্ডার। তবে ইনজুরির কারণে তৃতীয় ও ফাইনাল ম্যাচে নেই সাকিব। অধিনায়ক মোসাদ্দেকও দারুণ ছন্দে আছেন। ৩ ম্যাচে ১১৫ রান ও ৪ উইকেট শিকার করেছেন। শেষ ম্যাচে দক্ষিণের কাছে হারলেও ফাইনালে ভালো কিছুর আশায় মধ্যাঞ্চলের অধিনায়ক। মোসাদ্দেক বলেন, ‘আমিসহ আমাদের দলের কেউ চাপে নেই। একটা ভালো ফাইনাল হবে। সেটি নিয়ে সবাই এক্সাইটেড। আশা করছি, ভালো একটা ম্যাচ হবে।’ সাকিব প্রসঙ্গে মোসাদ্দেক বলেন, ‘সাকিব ভাই বড় একটা ফ্যাক্ট। শুধু আমাদের টিমে নয়, যে দলেই সাকিব ভাই থাকুন না কেন, সে দলই এগিয়ে থাকবে।’ ইনডিপেনডেন্স কাপে দারুণ ছন্দে আছেন মোস্তাফিজ। দক্ষিণের বাঁহাতি পেসার ৩ ম্যাচে ৪ ইকোনমিতে ৭ উইকেট শিকার করেছেন। এর মধ্যে মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে ৬৩ রানে পেয়েছেন ৪টি উইকেট। তবে মোস্তাফিজকে নিয়ে খুব বেশি ভাবতে চান না মোসাদ্দেক। তিনি বলেন, ‘মোস্তাফিজকে নিয়ে আপনি পরিকল্পনা করতে পারবেন না। সবাই জানে ও আলাদা। ওর কাজ ও করবে, আমাদের কাজ থাকবে সেরাটা খেলা। আমাদের প্রক্রিয়াটা আমরা মেইনটেইন করব এবং সে অনুযায়ী ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করব।’

গতকাল সিলেটে শেষবারের মতো অনুশীলনে নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছেন মোসাদ্দেক, সৌম্যরা। পেটের সমস্যার কারণে শেষ দুই ম্যাচে না খেললেও পুরোপুরি ফিট হয়ে অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন মিঠুন। ফাইনালে তিনি খেলবেন। তবে দক্ষিণের অধিকাংশ ক্রিকেটারই হোটেলে নিজেদের মতো করে সময় কাটিয়েছেন।

advertisement
advertisement