advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement
advertisement

মেধাবী শিক্ষার্থী সুচির পাশে দাঁড়ালেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৫ জানুয়ারি ২০২২ ০৮:৫৭ পিএম | আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০২২ ০৮:৫৭ পিএম
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা, ওএসপি, এনপিপি, আরসিডিএস, এএফডব্লিউসি, পিএসসি
advertisement

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির সুযোগ পান লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার শারমিন নাহার সুচি নামে এক মেধাবী শিক্ষার্থী। কিন্তু ভর্তি হতে পারলেও অর্থনৈতিক সংকটে তার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার দেখা দেয় অনিশ্চয়তা। ঠিক এই মুহূর্তে সুচির পড়াশোনা চালিয়ে যাওয়ার আর্থিক দায়িত্ব নিলেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা, ওএসপি, এনপিপি, আরসিডিএস, এএফডব্লিউসি, পিএসসি।

আলোকিত বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের (এবিএফ) মাধ্যমে মেধাবী শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে পেরে রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। পাশাপাশি দেশের অসহায় মেধাবী শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সব সামর্থ্যবান নাগরিককে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

এদিকে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে এবিএফের নির্বাহী পরিচালক ইফতেখার হোসেন মাসুদ বলেন, ‘মেধাবী শিক্ষার্থীদের কঠিন দুঃসময়ে সব সামর্থ্যবানদের এগিয়ে আসা উচিত। আর মেধাবীরাও একদিন আলোকিত বাংলাদেশ গঠনে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে।’

ইফতেখার হোসেন মাসুদ জানান, আলোকিত বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন ইতিমধ্যে ১৫০ এরও বেশি মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি নিয়ে উচ্চ শিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠাতে সহায়তা করেছে। সেই সঙ্গে দেশে ৫০০ এর অধিক অসহায় মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি নিয়ে পড়ালেখার ব্যবস্থা করেছে। এছাড়া ভবিষ্যতেও এই কাজের ধারা অব্যাহত থাকবে বলে জানান এবিএফের এই কর্ণধার।

advertisement
advertisement