advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

‘সত্য স্বীকার’ করায় কাদেরকে ধন্যবাদ ফখরুলের

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
১৩ মে ২০২২ ০৯:০৯ পিএম | আপডেট: ১৩ মে ২০২২ ০৯:০৯ পিএম
ঠাকুরগাঁও সদরের বাসুদেবপুর এলাকায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
advertisement

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ‘সত্য স্বীকার’ করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি সবসময় বলে আসছি আওয়ামী লীগের নেতারা বাংলাদেশকে লুট করে দেশকে একটা ভঙ্গুর অর্থনীতিতে পরিণত করেছে। এখন ওবায়দুল কাদের সাহেবও একই কথা বলছেন। তাদের দলের নেতারা দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা লুট করে পাচার করেছেন। এই সত্য কথা স্বীকার করায় আমি ওবায়দুল কাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।’

আজ শুক্রবার বিকালে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার জগ্ননাথপুর ইউনিয়নের খাগড়াবাড়ি এলাকায় সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে মির্জা ফখরুল ঐ গ্রামের নিহত বিএনপি কর্মী হারুন ও জয়নালের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন এবং তাদের পরিবারকে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেন। বিএনপিকর্মী হারুন ও জয়নাল গত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সদরের বাসুদেবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন।

মির্জা ফখরুলসহ বিএনপি নেতাদের পদত্যাগ করা উচিৎ ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ফখরুল বলেন, এমন কথা ওবায়দুল কাদের সবসময় বলেন। কিন্তু দেখা যাচ্ছে রাষ্ট্র পরিচালনায় তারাই ব্যর্থ। আওয়ামী লীগ সম্পূর্ণ ভাবে এই দেশকে একটা ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে। বাংলাদেশের মানুষ জানে আওয়ামী লীগ সরকারের সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থতা, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি রয়েছে। সবমিলিয়ে অবিলম্বে আওয়ামী লীগ সরকারের পদত্যাগ করা উচিৎ।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, সরকারের বিরুদ্ধে দেশে আন্দোলন শুরু হয়েছে। সব রাজনৈতিক দলগুলো তাদের কর্মসূচি দিচ্ছে। আজকে যুগপৎ আন্দোলন তৈরির সময় এসেছে। ১৯৯৬ সালে সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কথা উল্লেখ ছিল না। কিন্তু জনগণের চাহিদা অনুযায়ী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া সংবিধানে তা সন্নিবেশিত করেছিলেন। তিনি জনগণের পক্ষের মানুষ। ফখরুল বলেন, জনগণ চায় নিরপেক্ষ নির্বাচন। তাই জনগণের দাবি অনুযায়ী তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। না হলে দেশে বিপরীত পরিস্থিতি দেখা দিতে পারে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমীন, সহ-সভাপতি নুর করিম, অর্থ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরিফসহ বিএনপি ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা।