advertisement
advertisement
advertisement
DBBL
advertisement

অন্তরঙ্গ ছবি-ভিডিও ধারণ করে প্রতারণা, নারীসহ গ্রেপ্তার ২

নোয়াখালী প্রতিনিধি
১৪ মে ২০২২ ০৯:০৭ পিএম | আপডেট: ১৪ মে ২০২২ ১০:৪৩ পিএম
নোয়াখালীতে প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ছবি : আমাদের সময়
advertisement

মোবাইল ফোনে গড়ে ওঠা সম্পর্কের সূত্র ধরে লোকজনকে বাসায় ডেকে নিয়ে মারধর করে অর্ধ-উলঙ্গ নারীর সঙ্গে জোরপূর্বক অন্তরঙ্গ ছবি ও ভিডিও ধারণ করা প্রতারক চক্রের এক নারীসহ দুই সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।গতকাল শুক্রবার রাতে নোয়াখালীর মাইজদী হাউজিং এস্ট্রেটের নাভানা টাওয়ার থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন জেলার চাটখিল পৌরসভার গোবিন্দপুর এলাকার টিপু সুলতান চৌধুরী (৪৪) ও সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের পশ্চিম রাজারামপুর গ্রামের গৃহবধূ তাজ নাহার আক্তার রত্না (৩৪)। তাদের কাছ থেকে পাঁচটি স্ট্যাম্প, ব্যাংকের সাতটি চেক, ২৪টি মোবাইল ফোন, একটি আংটি ও ৩০হাজার টাকা জব্দ করা হয়।

আজ শনিবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তথ্যগুলো নিশ্চিত করেন, জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম।পুলিশ সুপার বলেন, গত ১২ মে বৃহস্পতিবার জেলা শহরের খন্দকার পাড়ার একটি ভাড়া বাসায় এক ব্যক্তিকে মোবাইলে সম্পর্কের সূত্র ধরে ডেকে নেন তাজ নাহার আক্তার রত্না। পরে ওই ব্যক্তিকে আটকে রেখে মারধর, এক নারীর সঙ্গে অর্ধ-উলঙ্গ ছবি-ভিডি ধারণ করেন। পরে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা তাদের দেবেন মর্মে সাদা স্ট্যাম্পে ওই ব্যক্তির স্বাক্ষর নিয়ে রাখেন। এ সময় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও একটি স্বর্ণের আংটি রেখে দেন তারা।

এর আগে, গতকাল শুক্রবার এমন অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার গভীর রাতে মাইজদী হাউজিং এস্ট্রেটের নাভানা টাওয়ারে অভিযান চালিয়ে জব্দকৃত মালামালসহ টিপু সুলতান চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পাশ্চি রাজারামপুর গ্রাম থেকে তাজ নাহার আক্তার রত্নাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের রিমান্ডের আবেদন করা হবে। তাদের চক্রটি অনেক বড় বলে ধারণা করা হচ্ছে। চক্রটির অন্য সদস্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলবে।