advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

২০ লাখ টাকা দামের ‘স্বপ্নরাজ’

খোন্দকার ইত্তেখার আহম্মদ টুটুল, চাটমোহর (পাবনা)
২৪ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৩ জুন ২০২২ ১১:০৬ পিএম
advertisement

নাম তার ‘স্ব^প্নরাজ’। খাবারের তালিকাটাও অনেকটা স্বপ্নের মতোই। আপেল, আঙুর, কলাসহ নানা ফলমূল ছাড়া তার চলেই না। চার বছরে শরীরের ওজন হয়েছে প্রায় ৩৬ মণ। আসন্ন কোরবানি উপলক্ষে তার দাম চাওয়া হচ্ছে ২০ লাখ টাকা। বলছি পাবনার চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়ালের বাঘলবাড়ি গ্রামের মোজাম্মেল হক বাবু লালন-পালন করা ষাঁড়ের কথা। কোরবানির ঈদ সামনে রেখে বিশালাকৃতির ফ্রিজিয়াম জাতের ষাঁড়টি দেখতে প্রতিদিনই শত শত মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন বাবুর বাড়িতে।

বাবু জানান, ‘স্বপ্নরাজ’ নামের ওই ষাঁড়ের বিশেষ যত্ন নেওয়া হয়। ষাঁড়টিকে সম্পূর্ণ সুষম খাদ্য যেমন- কাঁচাঘাস, খৈল, ছোলা, ভুট্টার ভুসি, মসুর ডালসহ ভালো মানের খাবার খাওয়ানো হয়। সেই সঙ্গে প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের ফলমূল তো রয়েছেই। রোগজীবাণু থেকে বাঁচাতে প্রতিদিন সাবান, শ্যাম্পু দিয়ে গোসল করানো হয়। খাওয়ানো হয়নি কোনো মোটাতাজাকরণ ওষুধ। পুরোপুরি দেশীয় পদ্ধতিতে বড় করা হয়েছে বলে দাবি গরুর মালিকের।

advertisement

তিনি আরও জানান, জন্মের পরই বাছুরটির শরীরের গঠন দেখে মায়ায় পড়ে যান। সন্তানদের নিয়ে যেভাবে প্রতিটা মা-বাবা স্বপ্ন দেখে ঠিক সে রকম স্বপ্ন দেখেছিলেন গরুটিকে নিয়ে। সে কারণে নাম রেখেছেন ‘স্বপ্নরাজ’। তিনি ও স্ত্রী মিলে অনেক যত্ন করে বড় করেছেন ষাঁড়টিকে। উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের ভ্যাটিরিনারি সার্জন ডা. রোকনুজ্জামান বলেন, গরুটির ব্যাপারে জানার পর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিস থেকে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখা হয়েছে। এ ছাড়া খামারের মালিক যেন প্রকৃত দাম পান সে জন্য প্রাণিসম্পদ অফিসের ফেসবুক পেজেও আপলোড দেওয়া হয়েছে স্বপ্নরাজের ছবি।

advertisement