advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

করোনা শনাক্ত আরও বেড়ে ১৩১৯ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৪ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৪ জুন ২০২২ ০১:১১ এএম
প্রতীকী ছবি
advertisement

দেশে করোনা ভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী ধারার মধ্যে গত একদিনে ১ হাজার ৩১৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে; কোভিডে মৃত্যু হয়েছে আরও একজনের। গতকাল বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৯ হাজার ২১৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৩১৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। তাতে ১৩ ফেব্রুয়ারির পর প্রথমবারের মতো দৈনিক শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩২ শতাংশে পৌঁছেছে। আগের দিন এই হার ছিল ১৩ দশমিক ৩০ শতাংশ।

করোনা ভাইরাসের ওমিক্রন ধরনের দাপট কমে আসার পর শনাক্তের হার ১ শতাংশের নিচে ছিল বেশ কিছু দিন। দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দশের নিচেও নেমেছিল। মাঝে ২০ দিন কোভিডে কারও মৃত্যু হয়নি।

কিন্তু জুন মাসের শুরু থেকে আবারও সংক্রমণ বাড়ছে প্রতিদিন। গত চার দিন ধরে মৃত্যুর খাতাও আর শূন্য থাকছে না।

নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৬০ হাজার ৫২৮ জন। তাদের মধ্যে ২৯ হাজার ১৩১ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনা ভাইরাস। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন আরও ১২৭ জন কোভিড রোগী। তাদের নিয়ে ১৯ লাখ ৬ হাজার ২৩২ জন সেরে উঠলেন। গত একদিনে শনাক্ত নতুন রোগীর মধ্যে ১১৬৩ জনই ঢাকা মহানগর ও জেলার বাসিন্দা। গত একদিনে ষাটোর্ধ্ব যে পুরুষের মৃত্যু হয়েছে, তিনিও ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়েছে চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, রংপুর বিভাগের ৩০টি জেলায়। গত একদিনে সিলেট বিভাগে কোনো শনাক্ত রোগী পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

মহামারীর মধ্যে সার্বিক শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ১৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ। আর মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪৯ শতাংশ।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ২০২০ সালের ৮ মার্চ। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ব্যাপক বিস্তারের মধ্যে গত বছরের ২৮ জুলাই দেশে রেকর্ড ১৬ হাজার ২৩০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়।

প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ২০২০ সালের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ২০২১ সালের ৫ আগস্ট ও ১০ অগাস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যুর খবর আসে, যা মহামারীর মধ্যে একদিনের সর্বোচ্চ সংখ্যা।

বিশ্বে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত মারা গেছে ৬৩ লাখ ২৪ হাজারের বেশি মানুষ। বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত ছাড়িয়েছে ৫৪ কোটি ১৪ লাখ।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাস্ক পরে ক্লাস করার নির্দেশ : দেশে হঠাৎ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাস্ক পরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাস করার নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদেরও মাস্ক পরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস করতে বলা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ নির্দেশ দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে। এদিকে এদিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত একদিনে করোনা শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩২ শতাংশ ছাড়িয়েছে।

আদেশে মাউশি বলছে, করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধকল্পে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর, অধিদপ্তরের অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক পরিধান করে অফিস-শ্রেণির কার্যক্রম পরিচলনার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করা হলো।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৩১৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩২ শতাংশ। বুধবার এ হার ছিল ১৩ দশমিক ৩০ শতাংশ। গত সোমবার শনাক্তের হার ছিল ১০ দশমিক ৮৭ শতাংশ।