advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঢাবি শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হল ছাড়া করল ছাত্রলীগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
২৪ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৩ জুন ২০২২ ১১:৩৬ পিএম
advertisement

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) জগন্নাথ হলের এক শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হল থেকে বের করে দিয়েছেন ওই হলের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এমনকি ভবিষ্যতে হলে ঢুকলে মেরে ফেলার হুমকিও দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় প্রক্টর ও জগন্নাথ হলের প্রাধ্যক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন উৎসব রায় নামে ওই শিক্ষার্থী।

advertisement

জানা গেছে, মোবাইল চুরির অভিযোগ এনে গত মঙ্গলবার উৎসবকে বেধড়ক মারধর করেন হল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। জগন্নাথ হলের সন্তোষ চন্দ্র ভট্টাচার্য ভবনের ৭০১২নং কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। উৎসব বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি অ্যান্ড বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ বিভাগের ২০১৭-১৮

শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। ঘটনার পর থেকে তিনি হলের বাইরে আছেন। বর্তমানে উৎসব বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল সেন্টার থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মিহির লাল সাহা তাকে দেখতে যান এবং সার্বিক বিষয়ে খোঁজখবর রাখছেন।

মোবাইল ফোন চুরির কথা অস্বীকার করে উৎসব রায় জানান, হল শাখা ছাত্রলীগের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক সত্যজিৎ দেবনাথের নেতৃত্বে এ হামলা চালানো হয়েছে। অভিযোগপত্রে তিনি ছাত্রলীগের ১৯ জনের নাম উল্লেখ করেছেন। তারা সবাই হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অতনু বর্মণের অনুসারী।

এ প্রসঙ্গে সত্যজিৎ দেবনাথ বলেন, তাকে আমি মারধর করিনি। শিক্ষার্থীরা মিলে তাকে বের করে দিয়েছে। ওর বিরুদ্ধে মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন জিনিস চুরির অভিযোগ রয়েছে। ওর বিরুদ্ধে ১০০ জনের বেশি শিক্ষার্থী সাক্ষ্য দিয়েছে। হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অতনু বর্মণ বলেন, উৎসব নামে ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে মোবাইল চুরির অভিযোগ রয়েছে। তবে মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। শিক্ষার্থীরা ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে বের করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মিহির লাল সাহা বলেন, আমি বিষয়টি জেনেছি। আবাসিক শিক্ষকদের বিষয়টি জানিয়েছি। ঘটনার পুরো খোঁজ নিয়ে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

advertisement