advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাধা ডিঙিয়ে মানুষের ঢল

পদ্মা সেতু আমার অহংকার

মুন্সীগঞ্জ ও শরীয়তপুর প্রতিনিধি
২৬ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৫ জুন ২০২২ ১১:৫২ পিএম
মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতু উন্মুক্ত করার পর কাছ থেকে দেখতে উৎসুক জনতা রক্ষণাবেক্ষণের সীমানা টপকে সেতুর ওপর উঠে যায় - আমাদের সময়
advertisement

পদ্মা সেতু উদ্বোধন হলেও গতকাল কোনো যান চলেনি। জনসাধারণের সেতুতে ওঠার অনুমতিও ছিল না। সেতুর আশপাশে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ছিলেনই, অনেক জায়গায় ছিল কাঁটাতারের বেড়াও। কিন্তু কোনো নিষেধাজ্ঞা কিংবা প্রতিবন্ধকতাই মানুষকে ঠেকাতে পারেনি। মানুষ উল্লাস করে, নিয়ম ভেঙে, কাঁটাতারের বেড়া ভেঙে-ডিঙিয়ে পদ্মা সেতুতে উঠেছেন। ছবি তুলেছেন। ঘুরে বেড়িয়েছেন। অবশ্য আইন ভাঙলেও মানুষের বাধভাঙা আনন্দে বাধা দেননি নিরাপত্তাকর্মীরা। প্রায় ঘণ্টা দুয়েক পর বুঝিয়ে তাদের সেতু থেকে নামিয়ে দেন।

গতকাল বেলা ১১টা ৫৮ মিনিটে সেতুর উদ্বোধন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এর পর সেতু পার হয়ে জাজিরায় যান তিনি। প্রধানমন্ত্রী সেতু পার হওয়ার পরপরই সেতুর দিকে এগিয়ে আসে উৎসুক জনতার ঢল। পদ্মা সেতু হেঁটে পার হওয়া বা সেতুতে থামা যাবে না- সেতু কর্তৃপক্ষের এমন নির্দেশনা থাকলেও তা মানেননি তারা। সেতুর পাশে স্থাপন করা বেষ্টনী ভেঙে তারা সেতুতে প্রবেশ করেন।

advertisement 3

পুলিশ জানিয়েছে, উদ্বোধনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হতে না হতেই আবেগতাড়িত হয়ে পদ্মা সেতুতে নামে উৎসুক জনতার বাধভাঙা ঢল। মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে ঝড়ের বেগে

advertisement 4

সেতুতে উঠে পড়া এসব মানুষ চেষ্টা করেন ওপারে জাজিরা প্রান্তে যেতে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বুঝে ওঠার আগেই সেতুতে অনেক দূর চলেও যান তারা। বেশ কিছু সময় সেখানে তারা ঘোরাঘুরি করেন, ছবি তোলেন। পরে সেতু ফাঁকা করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক বেগ পেতে হয়। পরে অনেক চেষ্টার পর তাদের বুঝিয়ে নামিয়ে আনা হয় বলে জানান দুই পদ্মা পারের নবগঠিত দুই থানার ওসি।

বন্ধুকে সঙ্গে করে জাজিরা প্রান্ত থেকে মোটরসাইকেল চালিয়ে মাওয়া প্রান্তে ছুটে আসেন মাদারীপুরের শিবচরের মো. কাউসার। তিনি বলেন, ‘সামান্য সুযোগ পেয়েছি। তখনই সেতুর ওপর ছুটে চলে এসেছি। আমিই প্রথম সেতুতে উঠেছি।’

নারায়ণগঞ্জের মো. টুটুল হেঁটে পদ্মা সেতু দেখতে পেরে দারুণ উচ্ছ্বসিত। তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখতে এসেছি। কিন্তু উদ্বোধনের অনুষ্ঠানস্থল থেকে অনেক দূরেই আটকে দেয় নিরাপত্তা বাহিনী। তবে প্রধানমন্ত্রী সেতু উদ্বোধন শেষে অনুষ্ঠানস্থল ত্যাগ করার পর ছুটে যাই সেতুর ঢালে। সেখানে অসংখ্য মানুষকে সেতুর দিকে ছুটে যেতে দেখতে পেয়ে আমিও সুযোগ নিই। হেঁটে সেতুতে উঠতে পেরেছি, দারুণ খুশি লাগছে।’ শরীয়তপুরের মামুন মিয়া বলেন, ‘স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে উঠে পেড়েছি, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে।’

advertisement