advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দিয়াবাতের জোড়া গোলে মোহামেডানের জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৮ জুন ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ২৮ জুন ২০২২ ১২:১৯ এএম
advertisement

প্রায় ছয় বছর পর শেখ জামালকে হারানোর গৌরব অর্জন করেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। গতকাল দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচে মোহামেডান ৩-১ গোলে হারিয়েছে শেখ জামালকে। এর আগে শেখ জামালের বিপক্ষে তাদের সর্বশেষ জয়টি ছিল ২০১৬ সালের অক্টোবরে। মালির স্ট্রাইকার সুলেমান দিয়াবাতের জোড়া গোলের সুবাদেই এ সাফল্য পেয়েছে মোহামেডান। এ নিয়ে টানা দুই ম্যাচে হারের পর জয়ে ফিরল মোহামেডান। অন্যদিকে চলমান প্রিমিয়ার লিগে শেখ জামালের তৃতীয় হার এটি। কুমিল্লার ভাষাশহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত স্টেডিয়ামে মোহামেডান ও শেখ জামাল ম্যাচে গোল হয়েছে চারটি। সব কটিই করেছেন সাদা-কালো জার্সিধারীরা। শেখ মোরসালিন গোল করে মোহামেডানকে এগিয়ে দেন। এর পর দিয়াবাতে আত্মঘাতী গোল করলে ম্যাচে ১-১ সমতায় ফেরে শেখ জামাল। তবে পেনাল্টি থেকে পর পর দুই গোল করে ম্যাচের জয়ের নায়ক বনে গেছেন দিয়াবাতে।

চলমান লিগে দুর্দান্ত ফুটবল খেলা শেখ জামালের ছন্দপতন ঘটে ১৬তম রাউন্ড থেকে। শেখ রাসেলের কাছে হারের পর পরের রাউন্ডেও পূর্ণ তিন পয়েন্ট খুঁইয়েছে দলটি। নতুন কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক দলে যোগ দেওয়ার পর অন্যরূপে দেখা যাচ্ছে মোহামেডানকে। নিজেদের হোমগ্রাউন্ডে আত্মবিশ্বাসী সাদা-কালো জার্সিধারীরা খেলার শুরু থেকেই চেপে ধরে শেখ জামালকে। গোল খুব বেশি না হলেও দারুণ ঘটনাবহুল ছিল এই ম্যাচ। শেখ জামালের দুই হ্যান্ডবল, মোহামেডানের পক্ষে দুই পেনাল্টি, এক আত্মঘাতী গোল আর সুলেমান দিয়াবাতের জোড়া গোল। সব মিলে দারুণ উপভোগ্য ছিল ম্যাচটি। খেলার ৩৫ মিনিটে জামালের দুর্বল রক্ষণের সুযোগ কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যায় মোহামেডান। ডান প্রান্ত দিয়ে ফাহিমের ডান পায়ের ক্রস ডান পায়ের শটে জামালের জালে জড়িয়ে দেন মোরসালিন (১-০)। কয়েক মিনিট পর রায়হান হাসানের লং থ্রো ফিরিয়ে দেন গোলকিপার। ওটাবেকের শট রুখে দিতে গিয়ে নিজেদের জালেই জড়ান মোহামেডানের সুলেমান দিয়াবাতে (১-১)। ৪২ মিনিটে মোরসালিনের লং বল বক্সে পেয়ে শট নিতে যাচ্ছিলেন সুলেমান দিয়াবাতে। কিন্তু সেই বল লাগে জামালের ডিফেন্ডার রায়হান হাসানের হাতে। রেফারি পেনাল্টির বঁঁাঁশি বাজান মোহামেডানের পক্ষে। সুলেমান দিয়াবাতের স্পট কিক আটকে দিতে ব্যর্থ হন নাঈম। আবারও এগিয়ে যায় মোহামেডান (২-১)। ৮১ মিনিটে জামালের একটি আক্রমণ রুখে দিতে গিয়ে আরিফুলেরও হ্যান্ডবল হয়। যে কারণে আবারও পেনাল্টি পায় মোহামেডান। সুলেমান দিয়াবাতের পেনাল্টি শট চলে যায় জামালের জালে (৩-১)। মোহামেডানের এখন ২৫ পয়েন্ট। শেখ জামালের অর্জন ৩০ পয়েন্ট।

advertisement 3

advertisement 4
advertisement