advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হিজবুল্লাহর ৩ ড্রোন গুলি করে নামাল ইসরায়েল

অনলাইন ডেস্ক
৩ জুলাই ২০২২ ১১:৫৫ এএম | আপডেট: ৩ জুলাই ২০২২ ১২:৩৮ পিএম
হিজবুল্লাহর একটি ড্রোন
advertisement

লেবাননের হিজবুল্লাহর তিনটি ড্রোন গুলি করে ভূপাতিত করেছে ইসরায়েল। ভূমধ্যসাগরের এক বিতর্কিত এলাকায় ইসরায়েলি একটি গ্যাসক্ষেত্রের দিকে যাওয়ার সময় ড্রোনগুলোকে ভূপাতিত করা হয় বলে দাবি করেছে ইহুদি এই দেশটির কর্তৃপক্ষ। আজ রোববার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ইসরায়েলের সামরিক কর্মকর্তারা বলছেন, হিজবুল্লাহর এই ড্রোনগুলো লেবানন থেকে উড়ানো হয়েছিল এবং সেগুলোকে শনাক্ত করার পর যুদ্ধবিমান ও জাহাজ থেকে নিক্ষেপ করা ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে আঘাত করে ভূপাতিত করা হয়।

advertisement

এদিকে, এ ঘটনার পর দেওয়া এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে ড্রোন উৎক্ষেপণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে হিজবুল্লাহ। মূলত কারিশ গ্যাসক্ষেত্রের মালিকানা নিয়ে ইসরায়েল ও লেবাননের মধ্যে সম্প্রতি উত্তেজনা বেড়েছে।

বিবিসি বলছে, মার্কিন জ্বালানি দূত আমোস হোচস্টেইন দীর্ঘদিনের এই বিরোধ নিষ্পত্তি করতে দুই দেশের মধ্যে মধ্যস্থতা করছেন। ইসরায়েল বলেছে, এই গ্যাসক্ষেত্রটি তার জাতিসংঘ-স্বীকৃত একচেটিয়া অর্থনৈতিক অঞ্চলের মধ্যে রয়েছে, তবে লেবাননও এর কিছু অংশে দাবি করে থাকে।

হিজবুল্লাহ বলেছে, শত্রুকবলিত এলাকার কাছাকাছি জায়গা পরিদর্শনের মাধ্যমে শত্রুর শক্তি নির্ণয় করতেই ড্রোনগুলোকে গ্যাস রিগের দিকে পাঠানো হয়েছিল। তাদের দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘মিশনটি সম্পন্ন হয়েছে এবং বার্তাটি পাওয়া গেছে।’

গত সপ্তাহে হিজবুল্লাহর নেতা হাসান নাসরাল্লাহ গ্যাসক্ষেত্রটি পরিচালনায় বাধা দিতে শক্তি প্রয়োগের হুমকি দিয়েছিলেন। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ বলেছেন, ইসলামপন্থি এই গোষ্ঠীটি ‘সমুদ্রসীমা সংক্রান্ত একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে লেবাননকে বাধা দিচ্ছে। এই চুক্তিটি লেবাননের অর্থনীতি ও সমৃদ্ধির জন্য গুরুত্বপূর্ণ’

আরও পড়ুন
>>> বিতর্কিত ইজরায়েলি গ্যাসক্ষেত্রে ড্রোন পাঠিয়েছে হিজবুল্লাহ

advertisement