advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হানিমুনে সময় কাটছে পূর্ণিমার

বিনোদন প্রতিবেদক
২ আগস্ট ২০২২ ০৬:০৪ পিএম | আপডেট: ২ আগস্ট ২০২২ ০৬:৪৬ পিএম
স্বামী রবিনের সঙ্গে পূর্ণিমা
advertisement

গত মাসের শেষ দিকে হঠাৎ বিয়ের খবর প্রকাশ করেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। যা নিয়ে রীতিমতো হইচই শুরু হয় নেটদুনিয়া থেকে শোবিজ অঙ্গনে। তখন পূর্ণিমা জানান, গত ২৭ মে দুই পরিবারের সম্মতিতে তার ও রবিনের (আশফাকুর রহমান রবিন) বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। বর্তমানে তারা রাজধানীর একটি অভিজাত এলাকায় থাকছেন।

বর্তমানে জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা স্বামীকে নিয়ে একান্ত সময় কাটাতে আছেন হানিমুনে। আর মধুচন্দ্রিমার স্থান হিসেবে বেছে নিয়েছেন থাইল্যান্ডকে।

advertisement

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২৮ জুলাই বর আশফাকুর রহমানকে নিয়ে পূর্ণিমা ব্যাংককের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন। এরই মধ্যে তারা ঘুরে বেড়িয়েছেন ব্যাংকক, পাতায়া, ফুকেটসহ বেশ কিছু স্থানে। থাকবেন আরও কয়েকদিন। এরপরই ফিরবেন দেশে।

অবশ্য কিছুদিন আগেই পূর্ণিমা ঘোষণা দিয়েছিলেন, হানিমুনের জন্য তার পছন্দের জায়গা থাইল্যান্ড। তবে সেসময় তিনি কবে যাবেন এ বিষয়টি প্রকাশ করেননি। বলেছিলেন, ‘যাব, তবে এখনই নয়। আম্মা তো এখনো পুরোপুরি সুস্থ হননি। সবকিছু স্বাভাবিক হলে সময় করে আশপাশের কোনো দেশে ঘুরতে যাওয়ার ইচ্ছা আছে। সেটা থাইল্যান্ড হতে পারে।’

উল্লেখ্য, ২০০৫ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ব্যবসায়ী মোস্তাক কিবরিয়ার সঙ্গে প্রথম বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন এই চিত্রনায়িকা। সেই সংসারের ইতি টানেন ২০০৭ সালের ১৫ মে। সেসময় একটি জাতীয় দৈনিকে এই বিচ্ছদের খবরও প্রকাশ হয়। যেখানে পূর্ণিমা বলেন, ‘হ্যাঁ, বিয়ে করেছিলাম, তালাকও হয়ে গেছে। আমার জীবনের চরম ভুল সিদ্ধান্তের মাশুল দিলাম।’

এরপর ২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদকে বিয়ে করেন পূর্ণিমা। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল তিনি প্রথম কন্যাসন্তানের মা হন। তার মেয়ের নাম আরশিয়া উমাইজা। তবে পূর্ণিমার এই সংসারও ভেঙে যায় বছর তিনেক আগে। বিচ্ছেদের পর থেকে ‘সিঙ্গেল মাদার’ হিসেবেই এতদিন জীবনযাপন করে আসছিলেন পূর্ণিমা। এর ফাঁকেই পরিচয় ঘটে রবিনের সঙ্গে।

advertisement