advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঘুষ দিয়েও মেলেনি চাকরি, নেতার ছেলেকে গাছে বেঁধে পিটুনি

অনলাইন ডেস্ক
৬ আগস্ট ২০২২ ০৪:৪১ পিএম | আপডেট: ৬ আগস্ট ২০২২ ১০:৪৪ পিএম
তৃণমূল নেতার ছেলেকে গাছে বেঁধে মারধর করা হচ্ছে। ছবি: সংগৃহীত
advertisement

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতিতে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় গ্রেপ্তার হওয়ার পরেই অস্বস্তিতে ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস। এর মধ্যে চাকরি দেওয়ার নামে বহু মানুষের কাছ থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল পূর্ব মেদিনীপুরের ভগবানপুরের তৃণমূল নেতা শিবশঙ্কর নায়েকের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, চাকরি না পেয়ে তার স্ত্রী ও ছেলেকে বেধড়ক মারধর করেছেন প্রার্থীরা।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, চাকরি দেওয়ার কথা বলে বহু মানুষের কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলেন শিবশঙ্কর নায়েক। কিন্তু কথামতো চাকরি দিতে পারেননি তিনি। ফলে বারবার তার বাড়িতে গিয়ে টাকা ফেরত চান চাকরিপ্রার্থীরা। তাতেও টাকা ফেরত না পেয়ে আজ শনিবার বহু চাকরিপ্রার্থী শিবশঙ্কর নায়েকের বাড়িতে হাজির হন। তখন তৃণমূল নেতাকে না পেয়ে তার স্ত্রী এবং ছেলেকে মারধর করেন তারা। অভিযোগ উঠেছে, তৃণমূল নেতার ছেলেকে গাছে বেঁধে মারধর করা হয়েছে।

advertisement

ভুক্তভোগীদের একজন দীপক মাইতি বলেন, ‘ছোট ভাইকে গ্রুপ ডি’তে চাকরি দিতে ৮ লাখ রুপি দিয়েছিলাম। পরে ২ লাখ রুপি ফেরত পেয়েছি। তবে চাকরি তো দূরের কথা, বাকি রুপিও ফেরত পাইনি। থানায় গেলেও অভিযোগ নেওয়া হয়নি।’ শিবশঙ্কর নায়েক তাদের খুন করার হুমকি দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন দীপক।

তৃণমূল নেতার স্ত্রী মলিনা নায়েকের দাবি, যদি তার স্বামী টাকা নিয়ে থাকে তাহলে তিনি যেমন দোষী তেমনি যারা টাকা দিয়েছে তারাও দোষী। তিনি বলেন, ‘যে টাকা নিয়েছে তাকে গিয়ে বলুক। আমরা কোনও দোষ করিনি। তাহলে আমাদের কেন মারধর করা হচ্ছে?’ চুলের মুঠি ধরে তাকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। অপরদিকে চাকরিপ্রার্থীরা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, টাকা ফেরত না দিলে তারা ফের বিক্ষোভ করবেন।

advertisement