advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পুলিশ-বিজিবি দিয়ে সরকার দেশ চালাবে

মির্জা ফখরুল ইসলাম, বিএনপি মহাসচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক
৮ আগস্ট ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ৮ আগস্ট ২০২২ ০৮:১৭ এএম
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর । পুরোনো ছবি
advertisement

জনগণের দুর্দশায় সরকারের কিছু যায়-আসে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়ে যারা পরিবার-বউ-বাচ্চার খরচ জোগান, তারা চোখে অন্ধকার দেখছেন। কৃষক কীভাবে সেচের কাজ করবেন?

এতে সরকারের কিছু আসে যায় না। তারা পুলিশ-বিজিবি দিয়ে দেশ চালাবে। নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গতকাল রবিবার কৃষক দলের এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

advertisement 3

হুশিয়ারি দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আর হবে না। দেশের মানুষ এভাবে দেশ চালাতে দেবে না। দেশের রাজনীতি, অর্থনীতি ধ্বংস করেছে, আমাদের ভবিষ্যৎ ধ্বংস করেছে। সুতরাং এই সরকারকে আর টিকতে দেওয়া যায় না। গত ৩১ জুলাই ভোলার সমাবেশে পুলিশের গুলিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুর রহিম ও ছাত্রদলের নুরে আলমের মৃত্যু এবং জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এই সমাবেশ হয়। সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হয়ে দুপুর ১টায় সমাবেশটি শেষ হয়।

advertisement 4

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বিএনপির চলমান সংলাপ প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা সবাই সংঘবদ্ধ হচ্ছি, ঐক্যবদ্ধ হচ্ছি। সরকারকে বলব- অবিলম্বে পদত্যাগ করুন, নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন।

সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশে কিছু মানুষকে ধনী থেকে আরও ধনী, গরিব থেকে গরিব বানিয়েছেন। আপনরা জনগণকে মিথ্যা তথ্য দেন বিভ্রান্ত করতে। জনগণের উদ্দেশে তিনি বলেন, বিভ্রান্ত না হয়ে নিজেকে প্রশ্ন করুন, চাল, তেল, সবজি, মাছের দাম কত বেড়েছে, গোশতের দাম কত বেড়েছে? তা হলে বুঝবেন দেশের অবস্থা কী?

কৃষক দলের সভাপতি হাসান জাফির তুহিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুলের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ফজলুল হক মিলন, আবদুস সালাম আজাদ, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, যুবদলের সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, আবদুল মোনায়েম মুন্না, ঢাকা মহানগর বিএনপি উত্তরের আমিনুল হক, দক্ষিণের রফিকুল আলম মজনু, কৃষক দলের নাসির হায়দার, জামাল উদ্দিন খান মিলন, মামুনুর রশিদ খান, এসএম ফয়সাল, খন্দকার নাসিরুল ইসলাম, ভিপি ইব্রাহিম, মাহমুদা হাবিবা, মেহেদি হাসান পলাশ প্রমুখ।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু বলেন, আমরা এক যুগ ধরে বাংলাদেশের উন্নয়ন উন্নয়ন শুনে আসছি। এই উন্নয়নটা কিসের উন্নয়ন? এই উন্নয়নটা হচ্ছে বাংলাদেশে ধর্ষণের জোয়ার, দ্রব্যমূল্যের ঊধর্বগতি, মানুষের অধিকার হরণের জোয়ার, কোনো উন্নয়নের জোয়ার নয়। #

advertisement