advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মন্টিনিগ্রোতে পারিবারিক বিরোধে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১১

অনলইন ডেস্ক
১৩ আগস্ট ২০২২ ১২:১৭ পিএম | আপডেট: ১৩ আগস্ট ২০২২ ১২:৪৫ পিএম
সেটিঞ্জে শহরে আক্রান্ত বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। ছবি: রয়টার্স
advertisement

ইউরোপের দেশ মন্টিনিগ্রোতে পারিবারিক বিরোধের জেরে ১১ জনকে গুলি করে হত্যা করেছে এক বন্দুকধারী। পরে গুলিতে ওই বন্দুকধারী নিজেও নিহত হয়েছেন। দেশটির কেন্দ্রীয় শহর সেটিঞ্জেতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ আহত হয়েছেন আরও ছয়জন। বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। 

advertisement 3

কর্মকর্তারা জানায়, ওই বন্দুকধারী একাই একই পরিবারের তিনজনকে হত্যার পর পথচারীদের ওপর গুলি চালানো শুরু করেন।

advertisement 4

প্রসিকিউটর আন্দ্রিজানা ন্যাসটিক সাংবাদিকদের বলেন, হামলাকারীর বাড়িতে অবস্থান করা এক মা এবং তার দুই শিশু নিহত হয়েছেন। এক বেসামরিক গুলি চালিয়ে বন্দুকধারীকে হত্যা করলে হামলা শেষ হয়।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিজের বাড়িতে অবস্থান করা একই পরিবারের তিনজনকে হত্যার পর ৩৪ বছর বয়সী হামলাকারী বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যান এবং এরপরই একই হান্টিং রাইফেল ব্যবহার করে আরও সাতজনকে গুলি করে গুলি করে হত্যা করেন।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় প্রসিকিউটর আন্দ্রিজানা ন্যাসটিক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আপাতত, এটা স্পষ্ট নয় যে এমন জঘন্য কাজ করতে (সন্দেহভাজন) কে প্ররোচিত করেছিল, কোন কারণে তিনি নিজেই তার জীবন থেকে বঞ্চিত হয়েছিলেন।’

এদিকে, এ ঘটনার জেরে দেশটিতে তিন দিনের সরকারি শোক ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী দ্রিতান আবাজোভিক। টেলিগ্রাম পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘আমি মন্টেনেগ্রোর সব নাগরিককে হামলার শিকার নিরীহ পরিবারের পাশে থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।’

advertisement