advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বিএনপির বিরুদ্ধে শোক দিবসের ব্যানার-ফেস্টুন ছেঁড়ার অভিযোগ

রাজশাহী ব্যুরো
১৪ আগস্ট ২০২২ ১২:০০ এএম | আপডেট: ১৪ আগস্ট ২০২২ ১২:৪৩ এএম
advertisement

আসন্ন জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজশাহী মহানগরজুড়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ নিহত তার স্বজনদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে ব্যানার-ফেস্টুন লাগিয়েছে আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। আর বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে এ শোক দিবসের প্রদর্শিত ব্যানার-ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার বিকালে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল থেকে নগরীর সাহেববাজার এলাকায় এসব ব্যানার ছেঁড়া হয় বলে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়। এ নিয়ে মহানগর আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার ঘটনায় জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতারা নগরীতে ব্যানার ও ফেস্টুন সাঁটিয়েছিলেন। ব্যানার ফেস্টুনগুলোতে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্ট নিহতদের ছবি ছিল। বিএনপির মিছিল থেকে সেগুলো ছিঁড়ে ফেলা হয়। এ ব্যানার-ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, শুক্রবার বিকালে বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল সাহেববাজার আরডিএ মার্কেট এলাকা অতিক্রম করার সময় কয়েকজন যুবক বঙ্গবন্ধুর ছবি সংবলিত জাতীয় শোক দিবসের ব্যানার ও ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলেন। এ সময় তারা বঙ্গবন্ধুর ছবির ওপর পা দিয়ে পিষে চলে যায় ও উল্লাস করতে থাকে। পরে মিছিলটি ভুবনমোহন পার্কে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- রাজশাহী মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মামুনুর রশিদ।

advertisement

মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, শুক্রবার বিকালে বিএনপি রাজশাহী নগরীতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করেছে। বিএনপির নেতাকর্মীরা সাহেববাজার, আরডিএ মার্কেট ও নিউমার্কেটের সামনে সাঁটানো বঙ্গবন্ধুর ও তার পরিবারের সদস্যদের শোকের ছবিগুলো হাত দিয়ে ও ব্লেড মেরে ছিঁড়ে ফেলেছে। আমরা বিষয়টি আরএমপির পুলিশ কমিশনারকে জানিয়েছি এবং অনুরোধ করেছি ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা নিতে। আমরা প্রয়োজনে মামলা দায়ের করব। শোকের মাসের জন্য আমরা একটু থেমে আছি। শোকের মাস শেষ হলেই আমরা এটি রাজনৈতিকভাবেই মোকাবিলা করব।’ জানতে চাইলে মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মামুনুর রশিদ বলেন, ‘মিছিল থেকে শোক দিবসের ব্যানার-ফেস্টুন ছিঁড়ে ফেলার বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে এ ধরনের কাজ অন্যায়। যদি কেউ এ কাজ করে থাকে তবে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

advertisement 4

advertisement